ঘোষণা

অবশেষে মুক্ত হলো জাপানের এক্সপ্রেসওয়ে 

ওমর শাহ | শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 400 বার

অবশেষে মুক্ত হলো জাপানের এক্সপ্রেসওয়ে 

উদ্ধারকর্মীদের প্রাণপণ চেষ্টার পর অবশেষে যানবাহন মুক্ত হলো জাপানের এক্সপ্রেস ওয়ে। ভারী তুষারপাতের কারণে দুই দিন ধরে এক্সপ্রেসওয়েতে আটকে বিপর্যস্ত অবস্থার মধ্যে ছিল যানবাহন গুলো।

তুষারপাতের কারণে এই প্রায় ২১০০ যান-বাহন কানেতসু এক্সপ্রেসওয়েতে আটকে ছিল। এই এক্সপ্রেসওয়েটি রাজধানী টোকিও এবং জাপানের উপকূলীয় জেলা নিগাতাকে সংযুক্ত করেছে।

ভারী তুষারপাতে গাড়ি হাইওয়েতে আটকা পড়ার পাশাপাশি ১০,০০০ ঘর-বাড়ি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে ছিল। দুর্যোগ কালীন সহায়তা হিসেবে উদ্ধারকর্মীদের মাধ্যমে তুষারপাত রাস্তা থেকে সরাতে কর্মী নিয়োগ করে জাপান সরকার।

গত দুইদিনের তুষারপাতে অনেক মানুষকে বিভিন্ন যানবাহনের মধ্যে আটকে থাকতে হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত রোড ও ট্রেন সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছিল দুইটি সেবা খাতের সংশ্লিষ্টরা।

এর আগে জাপানের মেট্রলজিক্যাল এজেন্সি জানিয়েছিল এই তুষারপাত আরো কয়েকদিন চলমান থাকবে তবে শুক্রবারে এর প্রভাব কিছুটা হ্রাস পেতে পারে।তুষারপাতের কারণে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় সংকটে পড়তে হতে পারে যাত্রীদের।

পুলিশ জানায়, টোকিও ও নিঘাটা জেলায় সংযোগ স্থাপনকারী কানেতসু এক্সপ্রেসওয়ের সাউথ বাউন্ডে প্রায় ৭৫০টি যানবাহন এবং নর্থ বাউন্ডে ৩৫০ টি যানবাহন আটকে থাকে তুষারপাতের কারণে।

তুষার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে টাস্কফোর্স গঠন করেছে জাপানের কেন্দ্রীয় সরকার একই সাথে জরুরী মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুহিদে সুগা।

জাপানের মন্ত্রিপরিষদ সচিব কাতসুনোবো কাটো এক সংবাদ সম্মেলনে জানান,তুষারপাতে আটকে পড়া ব্যক্তিদেরকে উদ্ধার কর্মীরা খাদ্য, জ্বালানি এবং কম্বল সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া তাদের নিরাপত্তার বিষয়টিও দেখছেন।

জাপান সাগর এর নিকটবর্তী নিগাতা জেলার প্রায় ১০ হাজার ঘরবাড়ি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে। এছাড়া জাপানের পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলা হায়গতেও তুষারপাতের হানা পড়েছে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব কাটো।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে সংশ্লিষ্ট এলাকায় তুষারপাতের কারণে সৃষ্ট বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করাসহ ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছিল প্রধানমন্ত্রী ইউসুহিদে সুগা।

বুধবার রাতে প্রায় ৩০০ যান-বাহন অবস্থান করছিল নিকাতা লাগানো ও গুমা জেলায় তবে ট্রাক এসে কিছু তুষার সরিয়ে দিলে ওই তিন জেলার যানবাহনগুলো অন্যত্র সরে যায়। তবে শনিবার সকালেই রাস্তা থেকে সমস্ত যানবাহনগুলো চলাচলে তুষার সরানো হয় বলেও জানানো হয়

তথ্যসূত্র: কায়দো নিউজ:

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ২:০২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ad