ঘোষণা

জমিনে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা

অনলাইন ডেস্ক | মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 458 বার

জমিনে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি ভালোবাসার নিদর্শন দেখিয়ে দেশবাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন আব্দুল কাদির নামের ময়মনসিংহের এক কৃষক।

ময়মনসিংহে নিজের চাষ করা ফসলের মাঠে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন তিনি।

লাল শাক ও সরিষা লাগিয়ে স্মৃতিসৌধ, নৌকা, শাপলা ও মুজিব শতবর্ষও এঁকেছেন ওই কৃষক। অন্য রকম সৌন্দর্যময় এই ফসলের মাঠ দেখতে প্রতিদিন ভিড় করছে মানুষ।

বঙ্গবন্ধুর প্রতি মানসিক ভাবনা ও ভালোবাসার নিদর্শনের রূপ জমিনেই ফুটিয়ে তুলে সৃষ্টিশীল মনের অধিকারী এ কৃষক সবার প্রশংসায় ভাসছেন। মোট ৩২ শতক জমিতে শৈল্পিক বুননে ফসলের মাঠকে করে তুলেছেন দৃষ্টিনন্দন।

এই কারুকার্যময় চিত্ররূপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় তা দেখার জন্য প্রতিদিন শতশত মানুষ ক্ষেতের পাশে ভিড় করছেন। তুলছেন সেলফি।

সরিষা ও লাল শাক বুননে ফুটে উঠেছে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ও নৌকাসহ স্মৃতিসৌধ। বাঁশ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে উঁচু টাওয়ার। যেখানে উঠেই ছবি তুলছেন অনেকেই।

ক্ষেত ঘুরে দেখা যায় দুই পাশে রয়েছে দুটি নৌকা, মাঝখানে বড় আকারের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি, আরেক পাশে স্মৃতিসৌধ ও চারপাশে চারটি লাভ। ক্ষেতে চোখ পড়লে দেখা যায় ছবির মতো যেন কোনো শিল্পী এঁকে রেখেছেন কোনো শিল্প কর্ম।

কৃষক আব্দুল কাদির

 

কৃষক আব্দুল কাদির (৪৪) ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ি ইউনিয়নের পাড়াখালবালা গ্রামের হাজি তারা মিয়ার পুত্র।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বির্তক, কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ভাঙচুর করা হচ্ছে। এর প্রতিবাদ জানাতেই জমিনে চিত্রাংকন করেছেন কৃষক আব্দুল কাদির।

প্রতিবছর এই মৌসুমে বিজয়ের মাসে জমিনে এ ধরনের নকশি একে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শন করবেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে দেশবাসী জানবে বঙ্গবন্ধুকে কখনো ভাঙা বা মুছে ফেলা যায় না।

কৃষক আব্দুল কাদিরের এই শিল্পকর্ম জানান দিচ্ছে লাখো কোটি বাঙালির হৃদয়ে বঙ্গবন্ধুর যে ভাস্কর্য রয়েছে তা কখনোই ধ্বংস হওয়ার নয় কারণ এই ভালবাসার শেকর আটকে আছে বাঙালি জাতির হৃদয়ের মাটিতে।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৩:৫৭ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

জুতার দাম ১০ লাখ ডলার!

০৯ ডিসেম্বর ২০২০