ঘোষণা

জাপানে বদলে যাচ্ছে হ্যালোইন উৎসবের ধরন

ওমর শাহ | বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ | পড়া হয়েছে 104 বার

জাপানে বদলে যাচ্ছে হ্যালোইন উৎসবের ধরন

করোনা মহামারীর কারণে জাপানে হ্যালোইন উৎসব এর ধরন বদলে যাচ্ছে। করোনাভাইরাস যাতে না ছড়ায় তাই এ বছর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনলাইনে নানান ধরনের সাজসজ্জায় মেতে উঠবে জাপানিরা।

হ্যালোইন বা অলহ্যালো’ইন, অল হ্যালোজ’ ইভ, অল সেইন্টস’ ইভ নামেও পরিচিত। হ্যালোইন হলো খ্রিস্টধর্মের একটি বার্ষিক উৎসব যা ৩১ অক্টোবর বিশ্বজুড়ে পালিত হয়।

পণ্ডিতদের মতে, এই উৎসবটির স্বতন্ত্র উৎপত্তি সামহেন থেকে এবং এর মূলে সরাসরি খ্রিস্টধর্মের প্রভাব বিদ্যমান। বেশ জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ জাপানেও এটি পালিত হয়।

হ্যালোইন উৎসবে পালিত কর্মকাণ্ডের মধ্যে আছে ‘ট্রিক-অর-ট্রিট’, ‘বনফায়ার’ বা অগ্ন্যুৎসব, আজব পোষাকের পার্টি, ভৌতিক স্থান ভ্রমণ, ভয়ের চলচ্চিত্র দেখা ইত্যাদি।

আইরিশ ও স্কটিশ অভিবাসীরা ১৯শ শতকে এই ঐতিহ্য উত্তর আমেরিকাতে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে বিংশ শতাব্দীর শেষভাগে অন্যান্য পশ্চিমা দেশগুলিও হ্যালোইন উদযাপন করা শুরু করে।

বর্তমানে পশ্চিমা বিশ্বের অনেকগুলি দেশে হ্যালোইন পালিত হয়, যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, আয়ারল্যান্ড, পুয়ের্তো রিকো, এবং যুক্তরাজ্য। এছাড়া এশিয়ার জাপানে এবং অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডেও হ্যালোইন পালিত হয়।


জাপানের শিবুয়া শহরে এই উৎসবটি বেশ জমকালো ভাবে আয়োজন করা হয় তবে ওই স্থানটি বর্তমানে করোনার হট স্পট হওয়ায় ৩১ অক্টোবর এই উৎসবটি অনলাইনে মাধ্যমে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিবুয়ার মেয়র কেন হাসিবি।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, দয়া করে এই বছর শিবরাত্রি এসে হ্যালোইন উৎসবে যুক্ত হবেন না করনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে এবার অন্য ভাবে এ উৎসবে সংযুক্ত হওয়ার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন মেয়র হাসিবি।

টোকিওর নিকটবর্তী নগরী কাওয়াসাকিতে গত বছর প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার মানুষ এ উৎসবে নানান ধরনের পোশাক পরে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেখানে তাদের কর্মের ওপর প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় সহ নানান রকম পুরস্কার দেওয়া হয়।

তবে এ বছর সরাসরি না আসতে পারলেও পৃথিবীর নানান প্রান্ত থেকে হ্যালোইন উৎসব এর কস্টিউম পড়ে তাদের একটি ভিডিও এখানে সাবমিট করা যাবে বলেও জানানো হয়েছে।

যারা এই পোশাক পড়ে ফাস্ট হবে বিচারক প্যানেল তাদেরকে জাপানি ৫ লক্ষ ইয়েন বা ৪৭০০ মার্কিন ডলার পুরস্কার দেবে কর্তৃপক্ষ।

এবছর জাপানের থিম পার্ক গুলোতে ও আয়োজন করা হবেনা হ্যালোইন উৎসবের আয়োজন। ইতিমধ্যে টোকিও ডিজনিল্যান্ড অ্যাপ এবং টোকিও ডিসি হ্যালোইন উৎসবের আয়োজন বাতিল ঘোষণা করেছে।কর্তৃপক্ষ বলছে উৎসবের চেয়ে তাদের কর্মী এবং পর্যটকদের স্বাস্থ্যের নিরাপত্তাকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ওসাকা নগরীর ইউনিভার্সাল স্টুডিও পর্যটকদের প্রবেশ সীমিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উৎসবকে ঘিরে। বড় আয়োজন করলে বেশি মানুষ জড়ো হবে তাতে আরো বেশি করোনাভাইরাস এর প্রভাব বেড়ে যেতে পারে বলেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাপানের কর্তৃপক্ষ।

তথ্যসূত্র: কায়দো নিউজ

সম্পাদনা: পি. আর. প্ল্যাসিড

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৮:৩১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত