ঘোষণা

পদত্যাগের আগে নতুন প্রতিরক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন আবে

ওমর শাহ | সোমবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 82 বার

পদত্যাগের আগে নতুন প্রতিরক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন আবে

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ১৬ সেপ্টেম্বর পদত্যাগের আগে নতুন ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষার উপর একটি বিবৃতি দেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন বলে দেশটির সরকারি একটি সূত্র জানিয়েছে।

দেশটির ক্ষমতাসীন দল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতাদের মধ্যে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা নিয়ে বিভক্ত হয়ে পড়লে এমন সময় বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে বিস্তারিত বিবৃতি প্রকাশ করতে পারবেন সেদিকেই নজর দেওয়া হচ্ছে।

লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি চায় জাপান অন্যান্য দেশের ভূখণ্ডে লক্ষ্যবস্তু আক্রমণ করার সামর্থ্য অর্জন করতে পারে, যদিও এর জুনিয়র জোটের শরিক নেতা কোমিটো বিরোধী অবস্থান নিয়েছেন।

গত ২৮ আগস্ট শারীরিক অসুস্থতা জনিত কারণে পদত্যাগ করার ঘোষণা দেন জাপানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

শিনজো আবের কথার সূত্র ধরেই এই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন সরকারের একজন উর্দ্ধতন কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে খুবই আগ্রহ রয়েছে শিনজো আবের। চলতি বছরের মধ্যেই জাপানের জাতীয় নিরাপত্তা কৌশল নিয়ে আলোচনা করার কথা থাকলেও বিদায় উপলক্ষে তিনি এ বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত দিয়ে যাবেন বলেও সরকারের একটি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

এই বিষয়টি নিয়ে আগে থেকে মাথাব্যথা ছিল জাপানের বর্তমান ক্ষমতাসীন দল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির শীর্ষ নেতাদের। তবে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের আগেই এ বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর দৌড়ে এগিয়ে থাকা জাপানের বর্তমান মন্ত্রিপরিষদ সচিব ইউসিহিদ সুগা একইসাথে তিনি ক্ষমতাসীন দলের পরবর্তী সভাপতি হবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সুগা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি যদি প্রধানমন্ত্রী হন একই সাথে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির সভাপতি হন তাহলে তিনি তার পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের দেখানো পথেই চলবেন।

এছাড়া অন্যান্য কৌশলের মধ্যে এ জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেই সিদ্ধান্ত তিনি মেনে চলবেন বলেও জানিয়েছেন।

জাপান সরকারের ওই সূত্রটি জানিয়েছে ১৪ সেপ্টেম্বর এলডিপির পরবর্তী নেতা ও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের আগেই বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে প্রতিরক্ষা বিষয়ে একটি বিবৃতি প্রদান করবেন।

এই বিষয়ে জাপানের রাজনীতিতে বিভাজন শুরু হয়েছে। কেউ বলছেন জাতীয় শত্রুদের প্রতিরক্ষা করার জন্য এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। আবার কেউ বলছেন এখনই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত নয়। তাই নতুন করে আলোচনায় এসেছে এই ইস্যুটি।

গত জুনে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে খোদ সরকারের ভিতর থেকেই। তাই এই বিষয়ে এখনই সিদ্ধান্ত এবং ঐক্যমতে পৌঁছাতে চান জাপানের ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতারা।

এলডিপির পক্ষ থেকে এমন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে যে বাইরের শত্রুদের আক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য এখনই জাপানকে প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তাই এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য তোড়জোড় শুরু হয়েছে।

তথ্যসূত্র: জাপান টুডে

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৩:০২ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত