ঘোষণা

প্রথমবারের মতো ভিন গ্রহের মাটি পৃথিবীতে আনলো জাপান

ওমর শাহ | সোমবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 391 বার

প্রথমবারের মতো ভিন গ্রহের মাটি পৃথিবীতে আনলো জাপান

চাঁদের মাটি কিংবা সম্প্রতি মঙ্গলের মাটি পরীক্ষা করে প্রাণের অস্তিত্ব জানতে বিজ্ঞানের অগ্রগতি আমরা দেখেছি। কিন্তু একেবারে দূরের এক গ্রহাণুর মাটি খুঁড়ে সেই নমুনা পৃথিবীতে আনার কাজ এই প্রথম। সেই কাজেই নজির তৈরি করল বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ জাপান।

দূরের মহাকাশে গ্রহাণুর নমুনা নিয়ে মহাকাশযানের একটি ক্যাপসুল রবিবারই পৃথিবীতে এসেছে। জাপানের মহাকাশ প্রোব হায়াবুসা ২ এই নজিরবিহীন কাজটি করেছে।

বিজ্ঞানীদের ধারণা ক্যাপসুলটিতে (অবতরণ যান) গ্রহাণুর উপাদানের ০.১ গ্রাম নমুনা রয়েছে, যার মাধ্যমে প্রাণের উৎস এবং মহাবিশ্ব সৃষ্টির ধারণা পাওয়া যাবে।

ক্যাপসুলটি নমুনা নিয়ে জাপানের সময় রাত ২টা ৩০ মিনিটে পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করে, এ সময় ক্যাপসুলটি একটি আলোর গোলকের মতো রাতের আকাশ উজ্জ্বল করে পৃথিবীতে নেমে আসে।

মহাকাশযানের অবতরণকালে এই দৃশ্য দেখে জাপান মহাকাশ সংস্থা জাক্সারে কর্মকর্তারা খুশিতে উচ্ছ্বসিত হয়। জাপানের বিজ্ঞানীদের এমন আনন্দের দৃশ্য সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ছয় বছর মহাকাশ ঘুরে অবশেষে হায়াবুসা ২ নমুনাসহ ক্যাপসুলটি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে। জাপানের সামাজিক মাধ্যম ও গণমাধ্যম এ নিয়ে সরব দেখা যায়।

কয়েক ঘণ্টা পরে জাপানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা জাক্সা জানায়, পৃথিবী থেকে ২ লাখ ২০ হাজার কিলোমিটার দূরে ফ্রিজ আকারের হায়াবুসা ২ প্রোব থেকে ক্যাপসুলটি আলাদা হয়ে পৃথিবীতে অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় মরুভূমিতে অবতরণ করে।

এটি পৃথিবী থেকে প্রায় ৩০ কোটি কিলোমিটার দূরে রাইগু গ্রহাণু থেকে নমুনা সংগ্রহ করে। ক্যাপসুলটিতে গ্রহাণুর নমুনা রয়েছে তা নিশ্চিত করা হয়েছে বলেও জানায় জাপানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা জাক্সা।

জানা যায়, গ্রহাণু থেকে মাটি সংগ্রহের এই যাত্রাটি শুরু হয় ২০১৪ সালের ৩ ডিসেম্বর। হায়াবুসা-২ ২০১৮ সালের জুন মাসে মঙ্গল আর বৃহস্পতি গ্রহের মাঝখানে থাকা গ্রহাণুপুঞ্জের সদস্য গ্রহাণু ‘রিউগু’তে পৌঁছায়।

এরপর ২০১৯ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি মহাকাশযানটি সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করার কার্যক্রম শুরু করে। ওই বছরের ১১ জুলাই নমুনা সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় হায়াবুসা-২। এরপরেই পৃথিবীর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে এ বছরের নভেম্বরে এসে পৌঁছায়।

এই অভিযানের গবেষক দল এক বিবৃতিতে জানায়, তাদের ক্যাপসুল মহাকাশযান হায়াবুসা-২ এক গ্রাম নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এক গ্রাম শুনতে কম মনে হতে পারে। তবে আমাদের প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এটুকুই যথেষ্ট।

ইতিহাসে প্রথমবার মহাকাশ থেকে গ্রহাণুপুঞ্জের নমুনা নিয়ে এলো জাপানী মহাকাশযানটি। এই কৃতিত্বে জাপানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে নাসা।

তথ্যসূত্র: বিবিসি, জাপান টুডে ও কায়দো নিউজ

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১০:১৪ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ad