ঘোষণা

বাংলাদেশের ধনী হওয়া যেন মানতেই পারছে না ভারত

ইসরাত জাহান পুষ্পিতা | রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০ | পড়া হয়েছে 45 বার

বাংলাদেশের ধনী হওয়া যেন মানতেই পারছে না ভারত

১৯৭১ সালে যখন বাংলাদেশ স্বাধীন হয় তখন বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল। বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশ হলেও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের পরিধি বেড়েই চলেছে।

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল –আইএমএফ দক্ষিণ এশিয়ায় জিডিপিতে বাংলাদেশ সবার শীর্ষে অবস্থান করবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

অগ্রগতির ধারাবাহিকতা নিয়ে এখন প্রতিবেশী ভারতের চেয়ে অনেক ধাপ এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ নিয়ে আইএমএফ এর ঘোষণার পরপরই ভারতজুড়ে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। দেশটির প্রধান প্রধান গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনেও বাংলাদেশের প্রশংসা শোনা যাচ্ছে।

সেখানে বলা হচ্ছে, মাত্র পাঁচ বছর আগে যে বাংলাদেশ জিডিপির হারে ভারতের কয়েক ধাপ পেছনে ছিল, সে বাংলাদেশ কোন জাদুর ছোঁয়ায় ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ অবস্থানে গেল।

অর্থনীতির ক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঠিক সিদ্ধান্তের প্রশংসার পাশাপাশি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করছে কিছু ভারতীয় গণমাধ্যম।

এছাড়াও আইএমএফ এর জিডিপির তালিকা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় তুলছেন ভারতীয় নাগরিকরা। ভারতীয় নেটিজেনরা বিশ্বাসই করতে পারছে না যে, চীন ও ভারতকে টপকিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার ইকোনোমিক লিডার বাংলাদেশ।

এদিকে ভারতীয় কলামিষ্ট অ্যান্ডি মুখার্জি দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে আইএমএফ পূর্বাভাস দিয়ে যে ঝড় তুলেছে তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খুব একটা প্রাধান্য পায়নি বলে সম্প্রতি মার্কিন গণমাধ্যম ফরেন পলিসির এক কলামে জানিয়েছেন।

এশিয়ায় বাংলাদেশ ভারত থেকে এগিয়ে থাকলেও তা মানছে নারাজ ভারতীয় এ বুদ্ধিজীবী। তার মতে, ভারতীয় রুপির মতো বাংলাদেশের টাকা বিশ্ব বাণিজ্যে মুক্তভাবে লেনদেন হয় না। তাছাড়া ক্রয় সক্ষমতার অনুপাতে ভারত বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে আছে বলে নিজ দেশের সাফাই গান।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:৪১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত