ঘোষণা

বাংলাদেশে জাহাজ রিসাইক্লিং শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী নরওয়ে

অনলাইন ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ | পড়া হয়েছে 49 বার

বাংলাদেশে জাহাজ রিসাইক্লিং শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী নরওয়ে

বিগত এক দশকে তথ্য প্রযুক্তি, বাণিজ্য, অর্থনীতি, সংস্কৃতি, আইন শৃঙ্খলা, নিরাপত্তা, জঙ্গীবাদ ও উগ্রবাদ নির্মূলসহ অবকাঠামোর ক্ষেত্রে অনেক শক্তিশালী হয়ে ওঠেছে বাংলাদেশ।

তাই বিশ্ব নেতারা বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে বিস্মিত। বিশ্বের নানান পত্রপত্রিকায় প্রায়ই বাংলাদেশের প্রশংসা করে প্রতিবেদন প্রকাশিত হচ্ছে।

এরই মধ্যে বাংলাদেশে নতুন করে বিনিয়োগ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশগুলো। এর মধ্যে আমেরিকা, চীন ছাড়াও জাপানসহ বিশ্বের কয়েক হাজার প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

এবার বাংলাদেশে জাহাজ পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ (রিসাইক্লিং) শিল্পে বিনিয়োগ করার আগ্রহ জানিয়েছে নরওয়ে। ২১ অক্টোবর এক ভিডিও কনফারেন্সে এ আগ্রহের কথা জানান নরওয়ের রাষ্ট্রদূত এসপেন রিকটার সেন্ডসান।

ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পরিবেশ ও উন্নয়ন সম্পর্কিত বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুই দেশের এক সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন এসপেন।

উভয় দেশের অবস্থান উপকূলবর্তী হওয়ায় বাংলাদেশ ও নরওয়ের মধ্যে পরিবেশগত অনেক মিল আছে। আর, সে কারণেই দুই দেশের সাগর নিয়ে কাজ করার সুযোগ আছে বলে জানান নরওয়ের রাষ্ট্রদূত।

নরওয়ের জাহাজ রিসাইক্লিং শিল্পে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে। এক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ানোসহ বাংলাদেশে এখন বাণিজ্য ও বিনিয়োগে আগ্রহী নরওয়ে।

এ সময় জলবায়ু পরিবর্তন, দারিদ্র্য বিমোচন, প্লাস্টিক দূষণ নিয়ন্ত্রণসহ অন্যান্য সমস্যা মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার সম্ভাবনা নিয়েও আলোচনা করেন তারা। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত বিভিন্ন ক্ষেত্রে এক সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতিও দেন।

বাংলাদেশ সরকার ব্যাপক বনায়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে সব ধরনের দূষণ নিয়ন্ত্রণে একটি টেকসই পরিবেশ তৈরিতে কাজ করছে বলে মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন জানান।

ঢাকায় ক্লাইমেট ভালনারেবিলিটি ফোরামের আঞ্চলিক অফিস ও গ্লোবাল সেন্টার অব অ্যাডাপ্টেশন এর কার্যালয় খোলার মাধ্যমে বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক ফোরামে আরও শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৭:৫১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত