ঘোষণা

বাংলাদেশে হাসপাতাল খুঁজতে খুঁজতে শেষ অক্সিজেন, চিকিৎসকের মৃত্যু

| মঙ্গলবার, ০৯ জুন ২০২০ | পড়া হয়েছে 100 বার

বাংলাদেশে হাসপাতাল খুঁজতে খুঁজতে শেষ অক্সিজেন, চিকিৎসকের মৃত্যু

ডেস্ক নিউজ : করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে বরিশালে প্রথম একজন চিকিৎকের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকার বাড্ডা এলাকার একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বরিশালের স্বনামধন্য চিকিৎসক ডা. মো. আনোয়ার হোসেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৫৫ বছর। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

ডা. মো. আনোয়ার হোসেন বরিশালের আধুনিক রাহাত-আনোয়ার হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, বরিশাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এবং বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক বরিশালের আজকালের খবর পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

আজ মঙ্গলবার সকাল নগরীর বান্দ রোডের রাহাত-আনোয়ার হাসপাতাল চত্বরে ডা. আনোয়ার হোসেনের প্রথম নামাজে জানাজা এবং বেলা ১২টায় ঝালকাঠীর বিনয়কাঠী ইউনিয়নের নাক্তা গ্রামের আজিজিয়া নূরানী মাদ্রাসা মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাকে পরিবারিক গোরস্থানে মা মরহুমা হালিমা বেগমের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়।
ডা. মো. আনোয়ার হোসেন দীর্ঘদিন ধরে অ্যাজমায় ভুগছিলেন। গতকাল সোমবারও তার প্রতিষ্ঠিত হাসপাতালে রোগী দেখেন ডা. আনোয়ার হোসেন। এর আগে রবিবারও তার হাসপাতালে রোগীদের অস্ত্রোপচার করেন তিনি। করোনার প্রকোপ শুরুর পর নগরীর স্বনামধন্য চিকিৎসকরা লাপাত্তা হলেও একদিনের জন্যও রোগী সেবায় পিছপা হননি তিনি। সামনের সারিতে নিজের প্রতিষ্ঠিত হাসপাতালে রোগীদের সেবা দেন ডা. আনোয়ার।

গত সোমবার সকাল ৮টার দিকে হঠাৎ তার শ্বাসকস্ট শুরু হয়। নির্বিচারে রোগী দেখায় করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন আশঙ্কায় নিজে থেকেই করোনা পরীক্ষার কথা বলেন সহকর্মীদের। উন্নত চিকিৎসার জন্য ওইদিন বিকেলেই এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়।

রাহাত-আনোয়ার হাসপাতালের পরিচালক অ্যাডভোকেট লস্কর নুরুল হক জানান, অক্সিজেন লাগানো অবস্থায় সোমবার রাতে এ্যাম্বুলেন্সে প্রথমে তাকে ঢাকার এ্যাপোলো, পরে স্কয়ার এবং আনোয়ার খান হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে আইসিইউ সুবিধা না পাওয়ায় রাত ৩টার দিকে নিয়ে যাওয়া হয় রাজধানীর বাড্ডা এলাকার এএমসি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এএমজি হাসপাতালে আইসিইউ সুবিধা পাওয়া গেলেও ততক্ষণে না ফেরার দেশে চলে যান ডা. আনোয়ার হোসেন।

ডা. আনোয়ার সম্পাদিত আজকালের খবর পত্রিকার বার্তা সম্পাদক খান স্বপন জানান, ঢাকায় হাসপাতাল খুঁজতে খুঁজতে এ্যাম্বুলেন্সের অক্সিজেন শেষ হয়ে যায়। অক্সিজেনের অভাবে মারা যায় ডা. মো. আনোয়ার হোসেন।

খান স্বপন জানান, ডা. আনোয়ার করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন বলে নিজে থেকেই তার সন্দেহ ছিলো। তবে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি।

গতকাল তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। এছাড়া তার পরিবারের সদস্য ও তার সংস্পর্শে যাওয়া ব্যক্তিদের নমুনাও সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন।

ডা. মো. আনোয়ার হোসেনের অকাল মৃত্যুতে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং প্রশাসনের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়েছে। পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছে বরিশাল প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দও।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৯ জুন ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত