ঘোষণা

প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবারের মতো পুতিনের এবং বাইডেনের ফোনালাপ

অনলাইন ডেস্ক | বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 423 বার

প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবারের মতো পুতিনের এবং বাইডেনের ফোনালাপ

বাইডেন ও পুতিন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবারের মতো রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনে আলাপ করেছেন জো বাইডেন। মঙ্গলবার বিকেলে এই দুই নেতার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন নিয়েও কথা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ বুধবার হোয়াইট হাউসের বরাতে বিবিসি জানায়, রাশিয়ার নেতা ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনালাপে মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ব্যাপারে সতর্ক করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এ ছাড়াও, রাশিয়ায় চলমান পুতিনবিরোধী বিক্ষোভ এবং যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার মধ্যকার একমাত্র অবশিষ্ট পারমাণবিক অস্ত্র চুক্তির বিষয়েও দুই নেতার মধ্যে কথা হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাশিয়ার যেসব কর্মকাণ্ড যুক্তরাষ্ট্রকে বা তার মিত্রদের ক্ষতি করে, সেসবের বিরুদ্ধে নিজেদের স্বার্থ রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র শক্ত পদক্ষেপ নেবে বলে পুতিনকে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন বাইডেন।

হোয়াইট হাউস আরও জানায়, দুই প্রেসিডেন্ট ‘সোলার উইন্ডস’ সাইবার হামলা (যার জন্য মস্কোকে দায়ী করা হয়), আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর ওপর হামলায় রাশিয়ার উসকানির অভিযোগ ও পুতিনবিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনিকে বিষপ্রয়োগসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন।

এদিকে, ফোনালাপ নিয়ে ক্রেমলিনের বিবৃতিতে দুই প্রেসিডেন্টের মধ্যে উষ্ণ কথোপকথনের কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

রুশ কর্মকর্তারা জানান, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক হলে তা দু’দেশের জন্যই ভালো এবং এটি গোটা বিশ্বে নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা অক্ষুণ্ণ রাখার জন্য তাদের বিশেষ দায়িত্ব হিসেবে বিবেচনা করা উচিত।

ক্রেমলিনের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের এই দুই নেতার মধ্যে আলোচনা অনেকটা ব্যবসায়িক এবং খোলামেলা ধাঁচের ছিল।

দুই নেতা ওবামা ক্ষমতায় থাকাকালীন করা ‘নিউ স্টার্ট’ নামের একটি চুক্তি নতুন করে নবায়ন করার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ওই চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রাগারে মিসাইল, লঞ্চার ও ক্ষেপণাস্ত্রের সংখ্যা সীমিত করার বিষয়ে উল্লেখ ছিল।

ওই চুক্তির মেয়াদ আগামী মাসেই শেষ হওয়ার কথা ছিল। সদ্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চুক্তি নবায়নের জন্য সই করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন।

রাশিয়ার আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পুতিন।

দু’পক্ষ থেকেই বলা হয়েছে যে, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দুই নেতা যোগাযোগ রক্ষা করার আশা জানিয়েছেন।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সমালোচনা ছিল যে তিনি পুতিনের বিষয়ে যথেষ্ট কঠোর নন।

এর আগের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, যার অধীনে জো বাইডেন ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন, তিনিও রাশিয়ার বিষয়ে কিছুটা দুর্বল ছিলেন বলে সমালোচনা রয়েছে।

ওবামা প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্রিমিয়ার সংযুক্তি, পূর্ব ইউক্রেনে আক্রমণ এবং সিরিয়ার ওপর জোর প্রয়োগ করার মতো ইস্যুতে ক্রেমলিনের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের যথেষ্ট নিয়ন্ত্রণ ছিল না বলে অভিযোগ তোলা হয়।

বিবিসি জানায়, জো বাইডেন ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, ভ্লাদিমির পুতিন নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প যতটুকু শক্ত ছিলেন তিনি তার চেয়েও বেশি কঠোর থাকবেন।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১:২২ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত