ঘোষণা

মনির ভাইয়ের দুই জীবন!

গাজী ফরহাদ | বুধবার, ১৯ আগস্ট ২০২০ | পড়া হয়েছে 93 বার

মনির ভাইয়ের দুই জীবন!

মনির ভাই এই সপ্তাহে বিবাহ করবেন তার শেষ কথা এটাই। অবিবাহিত জীবন মনির ভাইয়ের কাছে অসহ্য হয়ে গিয়েছে, অবিবাহিত জীবনের সমাপ্তি ঘটাতে হলে বিবাহ করা মনির ভাইয়ের জন্য আবশ্যক হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বিয়ে করবে ভালো কথা, মূল সমস্যাটা এই জায়গায়, মনির ভাইয়ের মা-বাবা এখন বিয়েতে মতামত দিচ্ছে না! তাদের কথা হলো ছেলে আগে প্রতিষ্ঠিত হোক তারপর। এইদিকে মনির ভাইয়ের চাকুরী নেই। মনির ভাইয়ের জ্বালায় – যন্ত্রণায় দোকানে ও যেতে পারছি না।

দোকানে যাকে দেখবে তাকেই বলবে , ভাই আমার মা-বাবা কে একটু রাজি করান।

মনির ভাইয়ের এইসব প্যানপ্যানানি আমাদের কারো কাছে ভালো লাগে না। মনির ভাইকে যে জায়গায় দেখি আস্তে করে কেটে পড়ি! যদি সামনে পড়ে যাই তাহলে আজ আমার কানের জায়গায় কান থাকবে না।

বিকাল বেলা দোকানে আসছি আমরা ৪ জন, বসে চা খাচ্ছি হঠাৎ মনির ভাইয়ের আগমন । পালিয়ে যাওয়ার কোনো রাস্তা নেই ।

° তোদের কে ভাই বলে পরিচয় দিতে আমার লজ্জা লাগে। তোদেরকে কত বার বললাম বিয়েটা করিয়ে দে, বউয়ের দায়িত্বতো তোরা নিবি না , নিবো তো আমি ।
° আচ্ছা তুমি তাহলে বিয়ে করবেই করবে ?
° আর কয়বার বলবো এই কথা ?
° আচ্ছা ঠিক আছে যাও, আমরা ৪ জন মিলে আজকে তোমার জন্য পাত্রী দেখতে যাবো।
° এই তো আমার ভাই। পাত্রী একটু সুন্দর দেখে দেখিস, ঘর-বাড়ি পরিবার সব যেনো ভালো হয়।
° আচ্ছা ঠিক আছে এখন যাও । শুধু শুধু কথা বলে কান জ্বালাবেন না।
° আচ্ছা যাই, যা বলছি দেখে শুনে করিস।

যাইহোক অবশেষে মনির ভাইয়ের মা-বাবা কে রাজি করিয়ে একটা ভালো পরিবার দেখে মনির ভাইকে বিয়ে করিয়ে দিলাম৷

এখন একটু শান্তিতে আছি , কানেরও সমস্যা হয় না। বিয়ের পর প্রায় বেশকয়েকদিন মনির ভাইয়ের সাথে আমাদের দেখা নেই, নতুন জামাই হয়তো শ্বশুর বাড়ির লোকজন ভালোভাবে জামাই আদর করছে।

এইদিকে বিয়ে করানোর সময় দায়িত্বে ছিলাম আমরা ৪ জন । একজন একেক জায়গায় চাকুরীতে চলে গিয়েছে আমি ছাড়া ! আমার চাকুরী নাই।

বিয়ের ২ মাস পর হঠাৎ মনির ভাইয়ের সাথে রাস্তায় দেখা। মনির ভাইয়ের চেহারা শরীর দেখে মনে হচ্ছে ভালো নেই।

আমাকে দেখা মাত্রই ছুটে আসলেন
° ফরহাদ ও ফরহাদ ।
° আরে মনির ভাই কেমন আছেন? বিয়ের পর তো আর দেখা যায়নি, কাহিনী কী ভাই?
° ভাইরে বিশাল সমস্যায় আছি, একমাত্র তুই ছাড়া এর সমাধান কেউ দিতে পারবে না।
° কী এমন সমস্যায় আছেন ভাই যে আমি ছাড়া আর কেউ পারবে না?
° ভাই বিয়েটা যেভাবে করিয়ে দিলি ডিভোর্স পেপারটায় ঠিক এইভাবে সাইন টা করিয়ে দিস।
° কী বলো, মাথায় আবার কোন ভূতে চেপে ধরলো? বিয়ে করার জন্য আমাদের কানের জায়গায় কান রাখেন নাই, আমরা আপনার মা-বাবা কে অনেক কষ্টে রাজি করিয়েছি আর আপনি বিয়ের ২ মাস পর বলছেন ডিভোর্সের কথা ।
° আর বলিস না ভাই, অবিবাহিত ছিলাম ভালোই ছিলাম। বিয়ে করে শুধু শুধু কেনো যে নিজের জীবনটা শেষ করে দিলাম।
° কাহিনী কী সেটা বলো ।
° ভাইরে বিয়ের ১ সপ্তাহ পর্যন্ত বউ ও ভালো আমি ও ভালো। বিয়ের ১ সপ্তাহ যেতে না যেতে শুরু হইছে বউয়ের প্যানপ্যানানি , এই এটা আনো , ঐটা আনো , বাজার করো, শাড়ি আনো, সাবান আনো, মানে এক কথায় দুনিয়ার সকল কিছু তার লাগবেই লাগবে। এখন আমার নাই চাকুরি।

বউকে বললাম, বাপের বাড়ি থেকে কিছু টাকা আপাতত নিয়ে আসো। বউ কোথা থেকে ঝাড়ু নিয়ে এসে কয়েকটা দিয়ে দিলো। যদি দৌড়ে না আসতাম আজকে হয়তো শেষ করে দিতো। এত কিছু কোথা থেকে নিয়ে আসবো ভাই তুই বল।

আমার পায়ের জুতাটা হাতে নিয়ে বললাম,
° ভাই বিয়ের শখ এইবার মিটছে তো, এইবার বুঝেন ঠ্যালা । আমরা নাই ।

এই কথা বলেই দৌড়, পিছন থেকে মনির ভাই ডাকছে, তাকিয়ে দেখার সময় নেই।

gaziforhad.gf@gmail.com

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৯ আগস্ট ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

মালতি

২৫ জুলাই ২০২০

 ফুটপাথ

৩০ জুলাই ২০২০

চন্দ্রাবলী

১৬ নভেম্বর ২০২০

বাটপার

১৩ আগস্ট ২০২০

সোনাদিঘি

১৪ জুলাই ২০২০

বিটলবণের স্বাদ

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফেরা

১৪ মার্চ ২০২০

জোছনায় কালো ছায়া

০৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

রূপকথা

২৬ এপ্রিল ২০২০