ঘোষণা

জাপানে ভ্যাকসিন নীতিতে চিকিৎসা কর্মী ও বয়স্কদের অগ্রাধিকার

অনলাইন ডেস্ক | মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ | পড়া হয়েছে 227 বার

জাপানে ভ্যাকসিন নীতিতে চিকিৎসা কর্মী ও বয়স্কদের অগ্রাধিকার

ওমর শাহ : নভেল করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরির কাজ এগিয়ে রাখছে বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ জাপান। দেশটির সরকার করোনার ভ্যাকসিন নীতিতে চিকিৎসা কর্মী ও বয়স্কদের অগ্রাধিকার দিয়ে খসড়া নীতিমালা প্রস্তাবনা তৈরি করছে বলে ১৪ জুলাই জাপান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাপান সরকার ভ্যাকসিনের অগ্রাধিকারের জন্য একটি খসড়া পরিকল্পনা তৈরির কাজ করছে। এই সপ্তাহের প্রথম দিকে কাজ শুরু করা হবে বলে সরকারি একটি সূত্র জানিয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিয়ে সম্প্রতি একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে জাপানে। বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে খসড়াটি আলোচনা করা হবে এবং আসন্ন শরৎ মৌসুমের মধ্যেই এটি চূড়ান্ত করা হবে। প্রকৃতপক্ষে কারা ভ্যাকসিন পেতে পারে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তাদের ভ্যাকসিন দেওয়ার নীতি তৈরি করা হচ্ছে।

করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার করতে বিশ্বজুড়ে গবেষণা ও উন্নয়ন ত্বরান্বিত হচ্ছে। জাপানে প্রথম ক্লিনিকাল ট্রায়াল গত মাসের শেষদিকে শুরু হয়েছিল। বাস্তবে ব্যবহারের জন্য ভ্যাকসিনগুলো কখন পাওয়া যাবে তা স্পষ্ট না হলেও, সরকার আশা করছে আগামী বছরের প্রথমার্ধের প্রথম দিকে পাওয়া যাবে।

২০১৩ সালে নভেল ইনফ্লুয়েঞ্জার জন্য ভ্যাকসিনগুলোকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্য সরকারের নির্দেশিকা জারি করেছিল। ভ্যাকসিনগুলো প্রথমে চিকিৎসক কর্মীদের দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। এর পরে সংক্রামক রোগের প্রতিক্রিয়া পরিচালনা করছেন বেসামরিক কর্মচারীরদের দিতে বলা হয়।
তারপরে বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পাবলিক ট্রান্সপোর্টের মতো মৌলিক অবকাঠামো সরবরাহকারী কর্মীদের পাশাপাশি যারা ব্যাংক এবং নার্সিং কেয়ার সুবিধাগুলিতে কর্মরত তাদের দেওয়ার কথা বলা হয়।

নভেল করোনা ভাইরাসের জন্য সরকার একটি ভিন্ন পরিকল্পনা তৈরির প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে। কারণ ওই নভেল ইনফ্লুয়েঞ্জাটির বৈশিষ্ট এক ধরনের ছিল। আর করোনা ভাইরাসটির বৈশিষ্ট আলাদা হওয়ায় এটির জন্যা ভিন্ন পরিকল্পনা তৈরি করছে সরকার।

সরকার নতুন পরিকল্পনাটি এমনভাবে সাজাচ্ছে যাতে পর্যাপ্ত চিকিৎসা পরিষেবা নিশ্চিত করার দিকে প্রাথমিকভাবে মনোনিবেশ করা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

চিকিত্সা কর্মী ও বয়স্কদের পাশাপাশি যারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে গুরুতর লক্ষণগুলো দেখা দেবে এবং যাদের চরম ভোগান্তির সম্ভাবনা রয়েছে তাদের ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে।

জাপানের কেন্দ্রীয় সরকার স্থানীয় সরকারগুলোকে আগস্টের প্রথম দিকে ভ্যাকসিনের অগ্রাধিকার প্রস্তাবটির বিষয়ে নিজেদের প্রস্তাবনা জমা দিতে বলা হয়েছে। একই সাথে তহবিল গঠনের বিষয়েও সরকার পরিকল্পনা করছে বলেও সরকারের সূত্র জানিয়েছে।

তথ্যসূত্র: জাপান টাইমস

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৫:৪০ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত