ঘোষণা

স্বাস্থ্য নিয়ে গুজব, চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে গেলেন শিনজো আবে

অনলাইন ডেস্ক | মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট ২০২০ | পড়া হয়েছে 81 বার

স্বাস্থ্য নিয়ে গুজব, চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে গেলেন শিনজো আবে

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের শারীরিক অবস্থা নিয়ে গুজবের মধ্যেই ১৭ আগস্ট (সোমবার) সকালে চিকিৎসা সেবা নিতে রাজধানী টোকিওর শিনানোমাচি এলাকার কেইও বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে যান জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

প্রধানমন্ত্রী আবের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি রুটিন অনুযায়ী স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হাসপাতালে গিয়েছেন বলেও জানায় ওই সূত্রটি। তিনি দিনের শেষে বাসভবনে ফিরে যান বলেও জানায় আবের ঘনিষ্ট সূত্রটি।

দুই সপ্তাহ আগে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ৬৫ বছরের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে ক্লান্ত লাগছে বলে মন্তব্য করেন জাপানের ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ট্যাক্স প্যানেল চেয়ারম্যান আকিরা আমারি। একই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আরো একজন সিনিয়র মন্ত্রী বলেন, শিনজো আবেকে ফ্যাকাসে দেখাচ্ছিল। দুই মন্ত্রীর মন্তব্যের সূত্র ধরে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ঢালাওভাবে সংবাদ প্রকাশ করে দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যম। ওই মন্তব্যের পরে আবে হাসপাতালে গেলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আবের ঘনিষ্ট আকিরা আমারি ১৬ আগস্ট (রোববার) এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে আমি বিরতি নিতে পরামর্শ দিয়েছি। দায়িত্ব পালনের প্রতি তিনি দৃঢ় প্রতিজ্ঞা। তবে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালে বিরতি নেয়াকে ভুল বলে মনে করেন আবে এমনটাই জানান আকিরা।

প্রতি বছর ১৫ আগস্ট দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের স্মরণ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পরে বিশ্রামের জন্য প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ইয়ামানাশি প্রদেশের নুরুসওয়া গ্রামের একটি ভিলায় কয়েকদিন অবকাশ যাপন করেন। তবে এ বছর তিনি সেখানে না গিয়ে রাজধানী টোকিওতেই বাসভবনে ছিলেন।

চলতি মাসের শুরুর দিকে জাপানের একটি সাপ্তাহিক ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনের পর প্রধানমন্ত্রী আবের স্বাস্থ্যের বিষয়ে উদ্বেগ বাড়তে থাকে। প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে জুলাইয়ে রক্ত বমি করেছেন বলে ওই সাপ্তাহিক ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনে বলা হয়। ওই ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনের পরে তার স্বাস্থ্যের বিষয় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

যদিও এই মাসের শুরুর দিকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ইয়োশিহিদ সুগা প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের স্বাস্থ্যের বিষয়ে যে গুজব শোনা যাচ্ছে তা উড়িয়ে দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী “সুষ্ঠুভাবে তাঁর দায়িত্ব পালন করে চলেছেন”। করোনাসহ বন্যা ও প্রাকৃতিক দুযোগের বিরুদ্ধে তিনি নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন তাতেই বুঝা যায় তার স্বাস্থ্য নিয়ে কোনো উদ্বেগ নেই বলেও জানান সুগা।

গত জুন থেকে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। ডায়েটের (সংসদে) সাধারণ অধিবেশন বন্ধ হওয়ার পর দীর্ঘ সংবাদ সম্মেলন ও অফ-সেশন বিতর্ক এড়িয়ে চলছেন। মাঝেমধ্যে অফিসের বাইরে তাঁর অপেক্ষায় থাকা সাংবাদিকদের সাথে কম আগ্রহ নিয়ে আলাপচারিতা করেন তিনি। এমন অবস্থায় কিছু পর্যবেক্ষক বলছেন যে আবের কণ্ঠে প্রাণবন্ততা নেই ও তাকে অসুস্থও দেখাচ্ছে।

জাপানের সবচেয়ে দীর্ঘকালীন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ২০১২ সালের পর থেকে দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় রয়েছেন। আলসারেটিভ কোলাইটিসের সাথে লড়াইয়ের কারণে ২০০৭ সালে তিনি তার প্রথম মেয়াদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন।

তথ্যসূত্র: জাপান টাইমস

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৮:৫২ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত