ঘোষণা

করোনার মধ্যেই জাপান-ভারত মুন মিশনের প্রস্তুতি, ল্যান্ডারে নেতৃত্ব ইসরোর

| শনিবার, ১৩ জুন ২০২০ | পড়া হয়েছে 22 বার

করোনার মধ্যেই জাপান-ভারত মুন মিশনের প্রস্তুতি, ল্যান্ডারে নেতৃত্ব ইসরোর

ওমর শাহ: করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে দুই দেশই। তার মধ্যেই আরও এগলো ভারত ও জাপানের মিলিতভাবে চন্দ্র অভিযানের প্রস্তুতি। ভারত ও জাপানের মধ্যে কোন দেশ অভিযানের কোন অংশটি পরিচালনা করবে, তার একটা রূপরেখা প্রকাশ করা হল।

এই চন্দ্র অভিযানে (Lunar Polar Exploration) প্রথমবারের জন্য চাঁদের বুকে ল্যান্ডার এবং রোভার স্থাপন করা হবে। এই অভিযানে ল্যান্ডারটি নির্মাণ ও পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো (Indian Space Research Organization)। অভিযানের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেছে জাপানি মহাকাশ গবেষণা সংস্থা JAXA। ২০২৩-এর পর এই অভিযান বাস্তবায়িত হবে বলে জানিয়েছে JAXA।

বর্তমানে মহাকাশে মানুষ পাঠানোর মিশন গগনযান (Gaganyaan) নিয়ে ব্যাস্ত ইসরো (ISRO)। ২০২২-এ গগনযান লঞ্চ করার কথা। JAXA-র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী জাপানিরা ল্যান্ডিং মডিউল এবং রোভার তৈরি করবে। ল্যান্ডার সিস্টেমের দায়িত্বে আছে ইসরো।

জাপান থেকেই উত্‍‌ক্ষেপণ করা হবে এই অভিযানের রকেট। H3 রকেটকে লঞ্চ ভেহিকেল (Launch Vehicle) হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই রকেট তৈরি করবে মিত্‌স্যুবিশি। ২০১৭-য় প্রথম ভারত-জাপান একসঙ্গে চন্দ্র অভিযানের কথা প্রকাশ করা হয়। ২০১৮-য় জাপান সফরে গিয়ে এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তারপর থেকে দুই দেশের মধ্যে চন্দ্র অভিযানের প্রস্তুতি বেশি কিছুটা অগ্রসর হয়েছে।

চান্দ্ররাতে সেখানে অবস্থান করা এবং খননকার্য করার লক্ষ্য রয়েছে ভারত-জাপানের মিলিত চন্দ্র অভিযানে। এই অভিযানের ফলে ভবিষ্যতের চন্দ্র অভিযান আরও সহজ হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। চাঁদের বুকে ঠিক কত পরিমাণ জল রয়েছে তা নির্ধারণ করাই মূলত এই অভিযানের উদ্দেশ্য। চন্দ্রপৃষ্ঠের ঠিক কোন কোন জায়গায় জল রয়েছে, তাও খুঁজে বের করাও লক্ষ্যে এই চন্দ্র অভিযানের।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ৬:৫৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৩ জুন ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত