ঘোষণা

করোনার মধ্যেও বিদেশীদের পুনরায় প্রবেশের অনুমতি দেবে জাপান!

অনলাইন ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০ | পড়া হয়েছে 37 বার

করোনার মধ্যেও বিদেশীদের পুনরায় প্রবেশের অনুমতি দেবে জাপান!

ওমর শাহ : প্রবাসী কর্মী ও জাপানে শিক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট যেমন বিদেশি শিক্ষাবিদদের পুনরায় জাপানে প্রবেশে অনুমতি দিতে জাপান সরকার পরিকল্পনা করছে। একটি সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে ১৬ জুলাই এ কথা জানিয়েছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম দ্য জাপান টাইমস।

বিদেশিদের মানবিক দিক বিবেচনা করে ও অর্থনীতির পুনরুদ্ধারে সহায়তা করার জন্য এমন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে। চলতি সপ্তাহের মধ্যেই সরকার এ বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত পৌঁছাবে বলে সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে জানায় পত্রিকাটি।

তবে জাপানের বাইরের বাসিন্দাদের পুনরায় প্রবেশে করোনা ভাইরাসের জন্য পলিমারেজ চেইন বিক্রিয়া (পিসিআর) পরীক্ষা করা বাধ্যতামূলক বলেও সরকারি সূত্রটি জানিয়েছে।

টোকিওর করোনাভাইরাস ভ্রমণ নিষিদ্ধের অধীনে তালিকাভুক্ত দেশগুলোতে বিদেশি বাসিন্দাদের ভ্রমণ করার পরে জাপানে পুনরায় প্রবেশের অনুমতি নেই, যদিও তাদের পরিবারের সদস্যরা জাপানে বসবাস করছেন।

বিদেশে চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসা করা ও বিদেশী আদালতে বিচারের জন্য উপস্থিত হওয়া যাদের দরকার তাদের ক্ষেত্রে কেবল পুনরায় জাপানে প্রবেশের অনুমতির বিধান রয়েছে বর্তমানে।

জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, প্রবাসী শ্রমিকদের পুনরায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়ার জন্য অনেক অনুরোধ এসেছে আমাদের কাছে। মূলত পশ্চিমা দেশগুলো থেকে অনেক অনুরোধ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এসেছে বলেও জানায় ওই কর্মকর্তা।

জানা যায়, প্রায় ৫০-৬০ হাজার প্রবাসী শ্রমিক জাপানে রয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেকে বিভিন্ন প্রয়োজনে জাপান থেকে যাওয়ার পর আর পুনরায় জাপানে প্রবেশ করতে পারেননি। এমন কী তারা জাপানে থাকা তাদের পরিবার থেকেও আলাদা হয়ে গেছেন। তারা আর পুনরায় জাপানে প্রবেশের অনুমতি পাননি।

বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে যারা জাপানের নাগরিকত্ব পেয়েছেন তাদের পুনরায় প্রবেশের অনুমতি না দেওয়াকে অযৌক্তিক বলে মনে করে সরকারের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন। তাই জাপানি সরকার তাদের পুনরায় জাপানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা যায়।

তবে সরকার সব প্রবাসী শ্রমিকদের পুনরায় প্রবেশের অনুমতি দিতে পারে না। কারণ হাজার হাজার মানুষের আন্তঃসীমান্ত চলাচল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য আরও বেশি ঝুঁকি তৈরি করার আশঙ্কা রয়েছে।

তাই করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সবাইকে ঢালাওভাবে জাপানে প্রবেশের অনুমতি আপাতত না দেওয়ার সিদ্ধান্ত রয়েছে শিনজো আবে প্রশাসনের।

তথ্যসূত্র: দ্য জাপান টাইমস

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত