ঘোষণা

৩০ মিনিটের মধ্যে নভেল করোনভাইরাস সনাক্তের টেস্ট কিট অনুমোদন দিল জাপান

| বুধবার, ১৩ মে ২০২০ | পড়া হয়েছে 25 বার

৩০ মিনিটের মধ্যে নভেল করোনভাইরাস সনাক্তের টেস্ট কিট অনুমোদন দিল জাপান



ওমর শাহ : সহজ ও দ্রুত পদ্ধতিতে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার ক্রমবর্ধমান চাহিদার প্রেক্ষিতে নতুন অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট অনুমোদন দিয়েছে জাপান সরকার। অ্যান্টিজেন টেস্ট কিটটি ১৫ থেকে ৩০ মিনিটের মধ্যে নভেল করোনভাইরাস সনাক্ত করতে সক্ষম। নভেল করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করার লক্ষ্যে ১৩ মে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

বর্তমানে করোনা পরীক্ষার জন্য প্রচলিত পলিমারেজ চেইন রিয়েকশন বা পিসিআর পদ্ধতিতে একজনের পরীক্ষার ফলাফল তৈরি করতে কয়েক ঘন্টা সময় লাগে। অথচ পরীক্ষার প্রয়োজন এমন লোকের সংখ্যা জাপানে বেড়ে যাচ্ছে। অধিক সংখ্যক পরীক্ষার জন্যই এই কিটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

টেস্ট কিটগুলোর স্বত্ত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ফুজিরেবিও ইন করপোরেশন। তারা জানিয়েছে প্রতি সপ্তাহে ২ লাখ কিট সরবরাহ করতে পারবে। আরও চাহিদা থাকলে সংখ্যাটি বাড়াতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানায় ফুজিরেবিও।

সাধারণত অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় চিকিৎসকরা একটি রোগীর নাকের মধ্যে একটি সোয়াব ঢুকিয়ে ফ্লু পরীক্ষা করে থাকেন। এ পদ্ধতিতে পরীক্ষা করে সনাক্ত করতে পিসিআর পরীক্ষার মতো ল্যাবে চালানোর প্রয়োজন হয় না।

এতে স্বল্প পরিমাণে ভাইরাসের ডিএনএ দিলেই হয়। কিছু ক্ষেত্রে, রোগীরা তাদের পিসিআর পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার জন্য এক সপ্তাহ অপেক্ষা করেছিলেন। এখন থেকে আর এতো সময় অপেক্ষা করতে হবে না। দ্রুতই জানা যাবে করোনায় আক্রান্ত কিনা।

তবে অ্যান্টিজেন টেস্টের পিসিআর পরীক্ষার চেয়ে ভাইরাসের সংবেদনশীলতা কম বলে মনে করা হয়, এই পরীক্ষার সঠিকতা নিশ্চিত করতে নেগেটিভ ফলাফল প্রাপ্ত লোকদেরও পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে।

দ্রুত পরীক্ষার পদ্ধতিটি তাৎক্ষণিক চিকিৎসার প্রয়োজন এমন রোগীদের পরীক্ষা করার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান ও নার্সিংহোমের মধ্যে কাজকরাদের মধ্যে সংক্রমণ পরীক্ষা করার জন্য ব্যবহার করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জাপানের পাবলিক বীমা ব্যবস্থার মাধ্যমে এই পরীক্ষাটি চলবে বলে আশা করা হচ্ছে। যদি চিকিত্সকের পরামর্শে পরীক্ষা করা হয় তবে রোগীদের পকেট থেকে কিছু দিতে হবে না। আর রোগীরা নিজের মতো পরীক্ষা করলে বাড়তি ফি দিতে হবে।

কোভিড -১৯ এর গুরুতর লক্ষণযুক্ত রোগীদের চিকিৎসা করার জন্য জাপান সরকার চলতি সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বায়োফর্মাসিউটিক্যাল সংস্থা গিলিয়েড সায়েন্সেস ইনকরপোরেশনের উদ্ভাবিত অ্যান্টি-ভাইরাল ড্রাগ রেমডেসিভার বিতরণও শুরু করেছে।

তথ্যসূত্র: দ্য জাপান টাইমস

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:০১ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৩ মে ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত