ঘোষণা

জাতীয় ফুল ও পুষ্টিকর সুস্বাদু সবজি শাপলা

আলম শামস | বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 142 বার

আমাদের জাতীয় ফুল শাপলা। নদী মাতৃক বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি জেলায় উপজেলায় দেখা মিলে এই ফুলের। ২৩০টি নদ-নদী বেষ্টিত বাংলাদেশে প্রায় প্রতিটি নদী ও শাখা নদীর দু’কুলে এবং এর চর এলকায় শাপলা চোখে পড়ে। বাংলার গ্রামীণ জনপদে অসংখ্য খাল-বিল হাওড়, বাওড় রয়েছে। বর্ষা ও শরতে এসব খাল-বিল হাওড়-বাওড়,পুকুর-দীঘি, ডোবাসহ যে কোন জলাশয়ে এ ফুলের দৃষ্টি নন্দন উপস্হিতি আমাদের বিমহিত করে। শাপলা শুধু যে ফুল তা নয়। শাপলা একটি সুস্বাদু ও পুষ্টিক ...বিস্তারিত

আমাদের জাতীয় ফুল শাপলা। নদী মাতৃক বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি জেলায় উপজেলায় দেখা মিলে এই ফুলের। ২৩০টি নদ-নদী বেষ্টিত বাংলাদেশে প্রায় প্রতিটি নদী ও শাখা নদীর দু’কুলে এবং এর চর এলকায় শাপলা চোখে পড়ে। বাংলার গ্রামীণ জনপদে অসংখ্য খাল-বিল হাওড়, বাওড় রয়েছে। বর্ষা ও শরতে এসব খাল-বিল হাওড়-বাওড়,পুকুর-দীঘি, ডোবাসহ যে কোন ...বিস্তারিত

আমাদের জাতীয় ফুল শাপলা। নদী মাতৃক বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি জেলায় উপজেলায় দেখা মিলে এই ফুলের। ২৩০টি নদ-নদী বেষ্টিত বাংলাদেশে প্রায় ...বিস্তারিত

বাংলার হারিয়ে যাওয়া বাহন পালকি

রীতা আক্তার | বুধবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 202 বার

পালকি! বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী এক প্রাচীন বাহন। মানুষ বহন করার কাজেই এ পালকি ব্যবহার হয়ে থাকে। প্রাচীনকালে সাধারণত ধনী গোষ্ঠী এবং সম্ভ্রান্ত বংশের লোকেরা এর মাধ্যমে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ভ্রমণ করতেন। কয়েকজন মানুষকেই এই পালকি ঘাড়ে করে বহন করতে হয়। সাধারণত পালকিকে কয়েকজন ঘাড়ে ঝুলিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হতে থাকে। যারা পালকিকে ঘাড়ে বা, কাঁধে করে বহন করে থাকেন তাদের পালকির বেহারা বা, কাহার বলে। পালকির ভেতরে ১ জন ...বিস্তারিত

পালকি! বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী এক প্রাচীন বাহন। মানুষ বহন করার কাজেই এ পালকি ব্যবহার হয়ে থাকে। প্রাচীনকালে সাধারণত ধনী গোষ্ঠী এবং সম্ভ্রান্ত বংশের লোকেরা এর মাধ্যমে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ভ্রমণ করতেন। কয়েকজন মানুষকেই এই পালকি ঘাড়ে করে বহন করতে হয়। সাধারণত পালকিকে কয়েকজন ঘাড়ে ঝুলিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হতে ...বিস্তারিত

পালকি! বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী এক প্রাচীন বাহন। মানুষ বহন করার কাজেই এ পালকি ব্যবহার হয়ে থাকে। প্রাচীনকালে সাধারণত ধনী গোষ্ঠী এবং ...বিস্তারিত

একটি কলঙ্কময় রাত

রীতা আক্তার | রবিবার, ১৫ আগস্ট ২০২১ | পড়া হয়েছে 170 বার

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সকল ইতিহাস দিয়ে অ্যাপটি সাজানো হয়েছে ।হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালের ১৭ মার্চে বৃহত্তর ফরিদপুর জেলার তত্কালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়ার সম্ভ্রান্ত শেখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পিতার নাম শেখ লুৎফর রহমান ও মাতার নাম সায়েরা খাতুন। পিতা-মাতার চার কন্যা এবং দুই পুত্রের ...বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সকল ইতিহাস দিয়ে অ্যাপটি সাজানো হয়েছে ।হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালের ১৭ মার্চে বৃহত্তর ফরিদপুর জেলার তত্কালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়ার সম্ভ্রান্ত শেখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ...বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সকল ইতিহাস দিয়ে অ্যাপটি সাজানো হয়েছে ।হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের ...বিস্তারিত

মসজিদের শহর বাগেরহাটের ষাট গম্বুজ মসজিদ বিশ্ব ঐতিহ্য

রীতা আক্তার | রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১ | পড়া হয়েছে 124 বার

খুলনার প্রচীন মসজিদের শহর বাগেরহাটের নাম ছিল খলিফাতাবাদ৷ শহরটির প্রতিষ্ঠাতা খান-ই-জাহান ছিলেন এক সাধক পুরুষ৷ ষাট গম্বুজ মসজিদসহ এখানকার নানা প্রাচীন স্থাপনা ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় স্থান পায় ১৯৮৫ সালে৷ বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত বাগেরহাট জেলার অন্তর্ভুক্ত বাগেরহাট শহরের একটি অংশ ছিল এই শহরটি। বাগেরহাট খুলনা থেকে ১৫ মাইল দক্ষিণ পূর্ব দিকে এবং ঢাকা থেকে ২০০ মাইল দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত। এই শহরের অপর নাম ছিলো খলিফতাবাদ এবং এটি শাহী বাংলার পুদিনার ...বিস্তারিত

খুলনার প্রচীন মসজিদের শহর বাগেরহাটের নাম ছিল খলিফাতাবাদ৷ শহরটির প্রতিষ্ঠাতা খান-ই-জাহান ছিলেন এক সাধক পুরুষ৷ ষাট গম্বুজ মসজিদসহ এখানকার নানা প্রাচীন স্থাপনা ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় স্থান পায় ১৯৮৫ সালে৷ বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত বাগেরহাট জেলার অন্তর্ভুক্ত বাগেরহাট শহরের একটি অংশ ছিল এই শহরটি। বাগেরহাট খুলনা থেকে ১৫ মাইল দক্ষিণ পূর্ব ...বিস্তারিত

খুলনার প্রচীন মসজিদের শহর বাগেরহাটের নাম ছিল খলিফাতাবাদ৷ শহরটির প্রতিষ্ঠাতা খান-ই-জাহান ছিলেন এক সাধক পুরুষ৷ ষাট গম্বুজ মসজিদসহ এখানকার নানা ...বিস্তারিত

পাঁচটি শর্তে সব ধরনের যানবাহন চলতে পারবে

বিবেকবার্তা ডেস্ক | বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 95 বার

বিআরটিএ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত পাঁচটি শর্তে সব ধরনের যানবাহন চলতে পারবে। শর্তগুলো হল: ১. বাস/ মিনিবাসে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে চলতে হবে। পাশাপাশি আসনে বসা যাবে না। গণপরিবহণে আসন বিন্যাস করতে হবে আড়াআড়িভাবে। অর্থাৎ, কোনো আসনে জানালার পাশে যাত্রী বসলে পেছনের আসনের যাত্রীকে করিডরের পাশের আসনে বসতে হবে। ২. অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে চলার কারণে যে আর্থিক ক্ষতি হবে, তা পুষিয়ে নিতে বিদ্যমান ভাড়ার ...বিস্তারিত

বিআরটিএ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত পাঁচটি শর্তে সব ধরনের যানবাহন চলতে পারবে। শর্তগুলো হল: ১. বাস/ মিনিবাসে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে চলতে হবে। পাশাপাশি আসনে বসা যাবে না। গণপরিবহণে আসন বিন্যাস করতে হবে আড়াআড়িভাবে। অর্থাৎ, কোনো আসনে জানালার পাশে যাত্রী বসলে পেছনের আসনের যাত্রীকে ...বিস্তারিত

বিআরটিএ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত পাঁচটি শর্তে সব ধরনের যানবাহন চলতে পারবে। শর্তগুলো ...বিস্তারিত

ঈদ পর্যন্ত লকডাউন শিথিল করা হলেও পরে কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর করা হবে

বিবেকবার্তা ডেস্ক | সোমবার, ১২ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 139 বার

করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধ ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত শিথিল করা হবে। তবে ২৩ জুলাই থেকে আবারও কঠোর বিধিনিষেধ জারি হবে।এ বিষয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে। বিধিনিষেধ শিথিল করার সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ধরনের গণপরিবহন এবং শপিং মলসহ দোকানপাট খোলা থাকবে। তবে আসনসংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলতে হবে গণপরিবহনকে। কোরবানির হাটও বসবে। শ্রমজীবী মানুষসহ জীবিকার দিক বিবেচনা ...বিস্তারিত

করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধ ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত শিথিল করা হবে। তবে ২৩ জুলাই থেকে আবারও কঠোর বিধিনিষেধ জারি হবে।এ বিষয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে। বিধিনিষেধ শিথিল করার সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ধরনের গণপরিবহন এবং ...বিস্তারিত

করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধ ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত শিথিল করা হবে। তবে ২৩ জুলাই থেকে আবারও কঠোর ...বিস্তারিত

করোনায় প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা

বিবেকবার্তা ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, ০৮ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 90 বার

  দেশে ব্যাপক হারে করোনায় আক্রান্ত গুরুতর রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। যার ফলে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে দেশ। সামনে আরো গুরুতর রোগীর সংখ্যা বাড়বে বলে ধারণা করছে বিশেষজ্ঞরা। একইসঙ্গে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা তাদের। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, বিগত দুই সপ্তাহে দ্বিগুন হয়ে বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫৯ হাজার ৩৪৩ জন। যারা দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাসপাতালের পরিস্থিতির পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করলে গুরুতর রোগী বাড়ার ...বিস্তারিত

  দেশে ব্যাপক হারে করোনায় আক্রান্ত গুরুতর রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। যার ফলে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে দেশ। সামনে আরো গুরুতর রোগীর সংখ্যা বাড়বে বলে ধারণা করছে বিশেষজ্ঞরা। একইসঙ্গে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা তাদের। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, বিগত দুই সপ্তাহে দ্বিগুন হয়ে বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫৯ হাজার ৩৪৩ জন। যারা ...বিস্তারিত

  দেশে ব্যাপক হারে করোনায় আক্রান্ত গুরুতর রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। যার ফলে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে দেশ। সামনে আরো গুরুতর রোগীর সংখ্যা ...বিস্তারিত

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত ভবন

বিবেকবার্তা ডেস্ক | মঙ্গলবার, ২৯ জুন ২০২১ | পড়া হয়েছে 96 বার

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত ভবনটিতে গ্যাসলাইনের কোনো সংযোগ ছিল না। নিচতলায় যেখান থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, সেই শরমা হাউসের গ্যাসের সিলিন্ডার অক্ষত আছে; বিস্ফোরিত হয়নি। নাশকতার জন্য ব্যবহৃত হতে পারে এমন বোমা বা বিস্ফোরকের কোনো অস্তিত্বও ঘটনাস্থলে মেলেনি। এই অবস্থায় বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত কিছু বলতে পারেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। তবে সরকারের একাধিক সংস্থার ধারণা, এই ভবন বা আশপাশের স্যুয়ারেজ লাইন অথবা অন্য কোনো উৎস থেকে সৃষ্ট গ্যাস ভবনের ...বিস্তারিত

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত ভবনটিতে গ্যাসলাইনের কোনো সংযোগ ছিল না। নিচতলায় যেখান থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, সেই শরমা হাউসের গ্যাসের সিলিন্ডার অক্ষত আছে; বিস্ফোরিত হয়নি। নাশকতার জন্য ব্যবহৃত হতে পারে এমন বোমা বা বিস্ফোরকের কোনো অস্তিত্বও ঘটনাস্থলে মেলেনি। এই অবস্থায় বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত কিছু বলতে পারেনি ...বিস্তারিত

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত ভবনটিতে গ্যাসলাইনের কোনো সংযোগ ছিল না। নিচতলায় যেখান থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, সেই ...বিস্তারিত

১ জুলাই থেকে সাত দিন কঠোর লকডাউন

বিবেকবার্তা ডেস্ক | মঙ্গলবার, ২৯ জুন ২০২১ | পড়া হয়েছে 80 বার

১লা জুলাই ভোর ৬ টা থেকে ৭ জুলাই রাত ১২ টা পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে। দেশে বর্তমান করোনা পরিস্হিতি বেড়ে যাওয়ার কারণে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। জরুরি সেবা ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হতে পারবে না। জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব অফিস - আদালত বন্ধ থাকবে। বিধি নিষেধ চলাকালে এবার কোন মুভমেন্ট পাস থাকবে না। গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ...বিস্তারিত

১লা জুলাই ভোর ৬ টা থেকে ৭ জুলাই রাত ১২ টা পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে। দেশে বর্তমান করোনা পরিস্হিতি বেড়ে যাওয়ার কারণে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। জরুরি সেবা ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হতে পারবে না। জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব অফিস - আদালত বন্ধ থাকবে। বিধি নিষেধ ...বিস্তারিত

১লা জুলাই ভোর ৬ টা থেকে ৭ জুলাই রাত ১২ টা পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে। দেশে বর্তমান করোনা ...বিস্তারিত

আজ বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস

বিবেকবার্তা ডেস্ক | শনিবার, ১২ জুন ২০২১ | পড়া হয়েছে 106 বার

শিশু শ্রম বাংলাদেশের একটি অন্যতম সমস্যা। দেশের নিম্ন বিত্ত পরিবারের বেশির ভাগ শিশু কোন না কোন ভাবে শিশু শ্রমে নিয়োজিত। ঘর থেকে বের হলে দেখা যাবে পথেঘাটে শিশুরা নানা কাজে নিয়োজিত। কেউ ফুল বিক্রি করছে, কেউ ইট ভাটায় কাজ করছে, খাবার হোটেলে কেউ কাজ কারছে এরকম নানাবিধ কাজে শিশুরা কাজ করে যাচ্ছে। আর এর প্রধান কারণ হচ্ছে দরিদ্রতা। বাংলাদেশের ৮০% লোক দরিদ্রতার শিকার। অনেক পরিবারে দেখা যায়, পরিবারে সদস্য সংখ্যা ...বিস্তারিত

শিশু শ্রম বাংলাদেশের একটি অন্যতম সমস্যা। দেশের নিম্ন বিত্ত পরিবারের বেশির ভাগ শিশু কোন না কোন ভাবে শিশু শ্রমে নিয়োজিত। ঘর থেকে বের হলে দেখা যাবে পথেঘাটে শিশুরা নানা কাজে নিয়োজিত। কেউ ফুল বিক্রি করছে, কেউ ইট ভাটায় কাজ করছে, খাবার হোটেলে কেউ কাজ কারছে এরকম নানাবিধ কাজে শিশুরা কাজ ...বিস্তারিত

শিশু শ্রম বাংলাদেশের একটি অন্যতম সমস্যা। দেশের নিম্ন বিত্ত পরিবারের বেশির ভাগ শিশু কোন না কোন ভাবে শিশু শ্রমে নিয়োজিত। ...বিস্তারিত

ad