ঘোষণা

একাকীত্ব

তাহমিনা সুলতানা | বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 84 বার

  কুয়াশা কেটে গেলে মেঘ সরিয়ে আকাশটা দারুণ ফাঁকা! গুটিগুটি পায়ে কাছে এসে দাঁড়ায় ঘন কালো নির্জনতা আর আমি আবার একা । কখনো কি তুমি ছিলে আমার মৃত্যুর মতোন এক সত্যিতে , নাকি টানা বৃষ্টির রাতে ক্ষণিক স্বপ্ন আলোময় পৃথিবী বিজলির আলোকে কিছু ভুল ছিল যেন ঘনীভূত কুয়াশা , বিশ্বাস আজ জমাটবদ্ধ পাথর অযথা কুয়াশা কেটে গেলে আকাশটা ফাঁকা আর আমি আবারও আগের মতো ...বিস্তারিত

  কুয়াশা কেটে গেলে মেঘ সরিয়ে আকাশটা দারুণ ফাঁকা! গুটিগুটি পায়ে কাছে এসে দাঁড়ায় ঘন কালো নির্জনতা আর আমি আবার একা । কখনো কি তুমি ছিলে আমার মৃত্যুর মতোন এক সত্যিতে , নাকি টানা বৃষ্টির রাতে ক্ষণিক স্বপ্ন আলোময় পৃথিবী বিজলির আলোকে কিছু ভুল ছিল যেন ঘনীভূত কুয়াশা , বিশ্বাস আজ জমাটবদ্ধ পাথর অযথা কুয়াশা কেটে গেলে আকাশটা ফাঁকা আর আমি আবারও আগের ...বিস্তারিত

  কুয়াশা কেটে গেলে মেঘ সরিয়ে আকাশটা দারুণ ফাঁকা! গুটিগুটি পায়ে কাছে এসে দাঁড়ায় ঘন কালো নির্জনতা আর আমি আবার একা । কখনো কি তুমি ছিলে ...বিস্তারিত

কখনও সখনও

| মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 16 বার

কখনও সখনও

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনও রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো মরা মনটা সজিবতায় ভরাবে কি করে। কখনও নির্ঘুম রাতে আধ ভাঙা চাঁদের সাথে বাড়াতে হয় সখ্যতা। নয়তো সমস্ত রাতের কান্না ভেজা চোখ ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনও রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো ...বিস্তারিত

কখনও সখনও

| মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 12 বার

কখনও সখনও

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনও রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো মরা মনটা সজিবতায় ভরাবে কি করে। কখনও নির্ঘুম রাতে আধ ভাঙা চাঁদের সাথে বাড়াতে হয় সখ্যতা। নয়তো সমস্ত রাতের কান্না ভেজা চোখ ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনও রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো ...বিস্তারিত

সংগ্রামই হল যাঁর জীবনের মূলমন্ত্র

শিবব্রত গুহ | শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 90 বার

এইজগতে, আছেন অনেক মানুষ, কিন্তু,  মানুষের মতো মানুষ, আছে কজন? গৌতম মুখার্জী হলেন, এমন একজন মানুষ, যাঁর নেই কোন তুলনা তিনি থাকেন, বাঁকুড়ায়, মানুষকে বাসেন ভালো। মানুষের দুঃখ - দুর্দশায়, কাঁদে তাঁর প্রাণ, তাঁর কলম,  কথা বলে, মানুষের। গৌতম মুখার্জীর জীবনসংগ্রাম, মানুষকে,  জীবনে এগিয়ে যেতে দেয়, অনুপ্রেরণা, সংগ্রাম, সংগ্রাম, সংগ্রামই হল ...বিস্তারিত

এইজগতে, আছেন অনেক মানুষ, কিন্তু,  মানুষের মতো মানুষ, আছে কজন? গৌতম মুখার্জী হলেন, এমন একজন মানুষ, যাঁর নেই কোন তুলনা তিনি থাকেন, বাঁকুড়ায়, মানুষকে বাসেন ভালো। মানুষের দুঃখ - দুর্দশায়, কাঁদে তাঁর প্রাণ, তাঁর কলম,  কথা বলে, মানুষের। গৌতম মুখার্জীর জীবনসংগ্রাম, মানুষকে,  জীবনে এগিয়ে যেতে দেয়, অনুপ্রেরণা, সংগ্রাম, সংগ্রাম, সংগ্রামই হল ...বিস্তারিত

এইজগতে, আছেন অনেক মানুষ, কিন্তু,  মানুষের মতো মানুষ, আছে কজন? গৌতম মুখার্জী হলেন, এমন একজন মানুষ, যাঁর নেই কোন তুলনা তিনি থাকেন, বাঁকুড়ায়, মানুষকে বাসেন ভালো। মানুষের দুঃখ - ...বিস্তারিত

হাতেখড়ি

বাসব রায় | শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 43 বার

বিড়ম্বনার চৌপথে বিভ্রান্ত বাতাস লুকোচুরির শিকার ভয়ঙ্কর টর্নেডোের আঘাতে বিচ্ছিন্ন সময় ; আমি আর তুমি ব্যবধানের পরিক্রমণে ভিন্ন ভিন্ন সত্তা -জন্মান্তরে হবে দেখা এমন নিশ্চয়তা নেই যদি দেখা হয় , যদি কথা হয় তাহলে রাষ্ট্র রাষ্ট্র খেলা হবে আবার ; আবেগের বাড়বাড়ন্ত আস্ফালন শুরু হবে নৈরাজ্যের পৃথিবীতে - আবার একদল উপবীতী হয়ে বসবে আহ্নিকে , জপ-তপে লীন হয়ে আসমুদ্রহিমাচল পর্যন্ত থাকবে দোর্দণ্ডপ্রতাপ হঠাৎ ঝড়ে ভেঙে পড়ে আজন্ম অত্যাচারের সনদ রুদ্রমূর্তি হয়ে সংস্কারের প্রকৃত শিক্ষায় হয় হাতেখড়ি - ...বিস্তারিত

বিড়ম্বনার চৌপথে বিভ্রান্ত বাতাস লুকোচুরির শিকার ভয়ঙ্কর টর্নেডোের আঘাতে বিচ্ছিন্ন সময় ; আমি আর তুমি ব্যবধানের পরিক্রমণে ভিন্ন ভিন্ন সত্তা -জন্মান্তরে হবে দেখা এমন নিশ্চয়তা নেই যদি দেখা হয় , যদি কথা হয় তাহলে রাষ্ট্র রাষ্ট্র খেলা হবে আবার ; আবেগের বাড়বাড়ন্ত আস্ফালন শুরু হবে নৈরাজ্যের পৃথিবীতে - আবার একদল উপবীতী হয়ে বসবে আহ্নিকে , জপ-তপে লীন ...বিস্তারিত

বিড়ম্বনার চৌপথে বিভ্রান্ত বাতাস লুকোচুরির শিকার ভয়ঙ্কর টর্নেডোের আঘাতে বিচ্ছিন্ন সময় ; আমি আর তুমি ব্যবধানের পরিক্রমণে ভিন্ন ভিন্ন সত্তা -জন্মান্তরে হবে ...বিস্তারিত

কখনো সখনো

রীতা আক্তার | সোমবার, ১৯ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 18 বার

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনো রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো মরা মনটা সজিবতায় ভরাবে কি করে। কখনো নির্ঘুম রাতে আধ ভাঙা চাঁদের সাথে বাড়াতে হয় সখ্যতা। নয়তো সমস্ত রাতের কান্না ভেজা চোখ ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো কখনো গোধূলীটাকে নিজের করে পেতে নেই। তাহলে সন্ধ্যার পর সেও হারিয়ে যায়। কখনো সখনো হীম বাতাসটাকে আগলে রাখতে হয়। নয়তো কষ্টের খরতাপে নিজেকে শীতল করবে কি করে। কখনো সখনো রোদের মুগ্ধতায় নিজেকে সাজাতে হয়। নয়তো ...বিস্তারিত

কখনো কখনো মন খারাপ করা বিকেলটাকে প্রশ্রয় দিতে নেই। তাহলে তা আঁধার করা সন্ধ্যার মতো বুকের মধ্যে কষ্টের প্রলেপ এঁকে দেয়। কখনো ...বিস্তারিত

সেই সে ছেলেটা

অঞ্জলি দে নন্দী | বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 75 বার

রগ চটা সেই সে ছেলেটা। এলেবেলে কথাবার্তা তার। সবাই ভেংচি কেটে বলত, এই ছেলেটা ভেল ভেলেটা! এতো খেতো এতো খেতো এতো খেতো, তা দেখে সবাই বলত, হাগুড়ে কোথাকার! রূপেও এক্কেবারে হত কুৎসিত সে তো। তাই নিজেই নিজে লজ্জা পেতো। তবে যৌবন বয়সে দিক পরিবর্তন হল তার, আপন ভ্যাগের চাকার। খুব কঠোর পরিশ্রম করতে হলেও, চাকরিটা ছিল সরকারী তার। মাইনেটাও কমই ছিল। তবুও তা নিয়েই ও খুশি ছিল। বাড়ি ছেড়ে বহু দূরে গেল চলে ও। এরপর সে নিজেকে বদলে নিল। মাঝপথে থামিয়ে লেখাপড়া ও চাকরী করছিল। এবার ও মন দিল ও ...বিস্তারিত

রগ চটা সেই সে ছেলেটা। এলেবেলে কথাবার্তা তার। সবাই ভেংচি কেটে বলত, এই ছেলেটা ভেল ভেলেটা! এতো খেতো এতো খেতো এতো খেতো, তা দেখে সবাই বলত, হাগুড়ে কোথাকার! রূপেও এক্কেবারে হত কুৎসিত সে তো। তাই নিজেই নিজে লজ্জা পেতো। তবে যৌবন বয়সে দিক পরিবর্তন হল তার, আপন ভ্যাগের চাকার। খুব কঠোর পরিশ্রম করতে হলেও, চাকরিটা ছিল সরকারী তার। মাইনেটাও কমই ছিল। তবুও তা নিয়েই ...বিস্তারিত

রগ চটা সেই সে ছেলেটা। এলেবেলে কথাবার্তা তার। সবাই ভেংচি কেটে বলত, এই ছেলেটা ভেল ভেলেটা! এতো খেতো এতো খেতো এতো খেতো, তা দেখে সবাই ...বিস্তারিত

বোবা কান্না

জিনাত নাজিয়া | বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 62 বার

আজ আকাশটা অন্য দিনের চেয়ে একটু বেশি পরিচ্ছন্ন। মনে হয় পূর্নিমা লেগেছে।চাঁদের আলোয় পৃথিবী ঝলমল করছে।রিয়ার আজ এসব দেখার কথা নয়।ও আজ চিরকালের জন্য এ বাড়ি ছেড়ে শ্বশুর বাড়ি চলে যাচ্ছে। বাবার আদরের রাজকন্যা, মায়ের আহ্লাদী মেয়ে, ছোট ভাইয়ের লক্ষী বাবুনি, এইসব ভালোলাগা গুলো ছেড়ে চলে যেতে হবে, ভাবতেই গা শিউরে ওঠে। ঐ বাড়িতে ও কি আমায় এরকম ভালোবাসবে সবাই, জানিনা...। রিয়ার ভাবনাগুলো আজ কেন জানি এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে। কেমন ...বিস্তারিত

আজ আকাশটা অন্য দিনের চেয়ে একটু বেশি পরিচ্ছন্ন। মনে হয় পূর্নিমা লেগেছে।চাঁদের আলোয় পৃথিবী ঝলমল করছে।রিয়ার আজ এসব দেখার কথা নয়।ও আজ চিরকালের জন্য এ বাড়ি ছেড়ে শ্বশুর বাড়ি চলে যাচ্ছে। বাবার আদরের রাজকন্যা, মায়ের আহ্লাদী মেয়ে, ছোট ভাইয়ের লক্ষী বাবুনি, এইসব ভালোলাগা গুলো ছেড়ে চলে যেতে হবে, ভাবতেই গা ...বিস্তারিত

আজ আকাশটা অন্য দিনের চেয়ে একটু বেশি পরিচ্ছন্ন। মনে হয় পূর্নিমা লেগেছে।চাঁদের আলোয় পৃথিবী ঝলমল করছে।রিয়ার আজ এসব দেখার কথা ...বিস্তারিত

হাঁস

বিপ্লব গোস্বামী | রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 78 বার

ঐ দীঘির জলে দেখ হাঁস করে প‍্যাক প‍্যাক। সঙ্গে নিয়ে ছানা ধরেছে যে গানা। সঙ্গে নিয়ে ছেলে পুলে সারা ক্ষণ থাকে জলে, ওদের তো না আসে জ্বর না আছে মায়ের গালির ডর। আমি যখন স্নানে যাই যদি পুকুরেতে সাঁতরাই, মা দেন বকুনি জ্বর আসবে এক্ষুনি ...বিস্তারিত

ঐ দীঘির জলে দেখ হাঁস করে প‍্যাক প‍্যাক। সঙ্গে নিয়ে ছানা ধরেছে যে গানা। সঙ্গে নিয়ে ছেলে পুলে সারা ক্ষণ থাকে জলে, ওদের তো না আসে জ্বর না আছে মায়ের গালির ডর। আমি যখন স্নানে যাই যদি পুকুরেতে সাঁতরাই, মা দেন বকুনি জ্বর আসবে এক্ষুনি ...বিস্তারিত

ঐ দীঘির জলে দেখ হাঁস করে প‍্যাক প‍্যাক। সঙ্গে নিয়ে ছানা ধরেছে যে গানা। সঙ্গে নিয়ে ছেলে পুলে সারা ক্ষণ থাকে জলে, ওদের তো না আসে ...বিস্তারিত

সামান্য ঘষামাজা

বাসব রায় | রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১ | পড়া হয়েছে 115 বার

-আচ্ছা তোমার চাকরির আর কতদিন ? - চার/পাঁচ বছর হবে - কতগুলো টাকা পাবে ? - জানি না - চল্লিশ পঞ্চাশ তো হবেই - তো - এটুকু তো মেয়ের বিয়ে দিতেই যাবে ৷ ভাবছি চাকরি শেষে তুমি কী করবে -! - একটা বিয়ে করবো ব্যাস্‌ এবার হলো ----- এতক্ষণ আমি একটাকিছু লিখবার প্লট তৈরি করছিলাম ৷ এরমাঝেই এসব উল্টোপাল্টা প্রশ্নে আমি জর্জরিত ৷ জবাব দিতে দিতে হাঁপিয়ে উঠেছি ৷ একটার পর একটা প্রশ্ন সিরিয়াল কিলার ঢঙ্-এ ৷ শুরু হলো ...বিস্তারিত

-আচ্ছা তোমার চাকরির আর কতদিন ? - চার/পাঁচ বছর হবে - কতগুলো টাকা পাবে ? - জানি না - চল্লিশ পঞ্চাশ তো হবেই - তো - এটুকু তো মেয়ের বিয়ে দিতেই যাবে ৷ ভাবছি চাকরি শেষে তুমি কী করবে -! - একটা বিয়ে করবো ব্যাস্‌ এবার হলো ----- এতক্ষণ আমি একটাকিছু লিখবার প্লট তৈরি করছিলাম ৷ এরমাঝেই এসব উল্টোপাল্টা ...বিস্তারিত

-আচ্ছা তোমার চাকরির আর কতদিন ? - চার/পাঁচ বছর হবে - কতগুলো টাকা পাবে ? - জানি না - চল্লিশ পঞ্চাশ তো হবেই - তো - ...বিস্তারিত

ad