ঘোষণা

মালতী বালা ও ক্যানলার হাওরে ভেসে বেড়ানো প্রত্নগল্প

সাইফুর রহমান কায়েস | রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 204 বার

হাওর পাড়ে সন্ধ্যা নেমে আসছে প্রায়। আমি মায়াঘোর কাটিয়ে উঠতে পারি না কখনো। ছোট ছোট নদীকে গর্ভে ধারণ করে বয়ে চলে যাদুকাটা নদী। আহারে! কালিদহের শেষ প্রবংশ। আমার চোখ আটকে যায় যাদুকাটার নীল জলে। আমি একেই সাগর ভেবে স্নান করতে চাই। কোনো একদিন হয়তো পূণ্যস্নানের জন্য আবার মাঘীপূর্ণিমা রাতের অধীরতা আমাকে ফানাফানা করে বেড়াবে। পূন্যাহ উৎসব উদযাপনের জন্য সারবেধে ধীরলয়ে অদ্বৈত মহাপ্রভুর আশ্রমের দিকে এগিয়ে যাওয়া মানুষের ভিড়ে নিজেকে আবার ...বিস্তারিত

হাওর পাড়ে সন্ধ্যা নেমে আসছে প্রায়। আমি মায়াঘোর কাটিয়ে উঠতে পারি না কখনো। ছোট ছোট নদীকে গর্ভে ধারণ করে বয়ে চলে যাদুকাটা নদী। আহারে! কালিদহের শেষ প্রবংশ। আমার চোখ আটকে যায় যাদুকাটার নীল জলে। আমি একেই সাগর ভেবে স্নান করতে চাই। কোনো একদিন হয়তো পূণ্যস্নানের জন্য আবার মাঘীপূর্ণিমা রাতের অধীরতা ...বিস্তারিত

হাওর পাড়ে সন্ধ্যা নেমে আসছে প্রায়। আমি মায়াঘোর কাটিয়ে উঠতে পারি না কখনো। ছোট ছোট নদীকে গর্ভে ধারণ করে বয়ে ...বিস্তারিত