ঘোষণা

আমরা জাপান থেকে যত পেলাম, তত কি কিছু শিখলাম?

অনলাইন ডেস্ক | শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 102 বার

আমরা জাপান থেকে যত পেলাম, তত কি কিছু শিখলাম?

জাপান আমাদের একনিষ্ঠ বন্ধুরাষ্ট্র। বিপদে আপদে আমাদের পাশে থাকে এই জাপান। আমরা জাপান প্রবাসী। বিবেকবার্তা জাপান থেকে প্রকাশিত কমিউনিটি পোর্টাল। বিবেকবার্তার চোখে আমরা প্রায়ই জাপান এবং জাপানিদের সাথে বাংলাদেশ এবং বাঙালিদের মিল- অমিল খুঁজি।

বলার মত অনেক কিছুই আছে যা বলে শেষ করা যাবে না। আপাতত একটা বিষয় যা না বললেই নয়, তা হচ্ছে আমার দীর্ঘ প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতায় দেখেছি জাপানের সম্রাট বার্ধক্যজনিত কারণে সেচ্ছায় ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে অবসর নিয়েছেন বা স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন।
আরো বেশি বলার মতো হচ্ছে, রাজনৈতিক ক্ষমতার শিখরে থাকা ব্যক্তিটি যখন শারীরিক অসুস্থতার কারণে স্বেচ্ছায় ক্ষমতা থেকে সরে যান তখন। জাপানের বর্তমান প্রধান মন্ত্রী যিনি ব্যক্তিগতভাবে বহির্বিশ্বের সাথে সম্পর্ক গড়তে সফল এবং জাপানের দীর্ঘতম সময় প্রধানমন্ত্রীত্ব করেছেন তিনিও তাঁর শরীরের দুর্বলতার অযুহাত দেখিয়ে ক্ষমতা থেকে সরে যাচ্ছেন।

দুটো বিষয় থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। আমরা মুখে বলি. জাপানের পতাকার সাথে আমাদের পতাকার মিল আছে। জাপান আমাদের বন্ধু দেশ। এটা শুধু মুখে মুখে বললেই হবে না। জাপানের আরো অনেক কিছু দেখার, জানার এবং শেখার আছে। জাপান থেকে আমরা অনেক বড় অংকের অর্থ পেয়েছি, সামনে হয়তো আরো পাবো যা দিয়ে আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে যাত্রা শুরু করেছি। তাদের মানসিকতাটুকু রপ্ত করতে পারলে আমার বিশ্বাস বর্তমান বাংলাদেশের ১৮ কোটি (প্রায়) জনসংখ্যা দেশের জন্য সম্পদই হবে। এই সম্পদ কাজে লাগিয়ে এমন দৃষ্টান্ত তৈরি করা সম্ভব যা দেখে বহির্বিশ্বের দৃষ্টি এই বাংলাদেশের দিকে ফেরানো সম্ভব।

যতদিন আমাদের দেশের রাজনৈতিক ক্ষমতা আকড়ে ধরে বসে থাকার মানসিকতা না যাবে, ততদিন পর্যন্ত জাপান থেকে অর্থই যাবে দেশে তবে জাপানের সাথে অন্য আর কিছু তুলনা করার মতো তৈরি হবে বলে আমার মনে হয় না।

পি. আর. প্ল্যাসিড
সম্পাদক
বিবেকবার্তা ডট নেট

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |