ঘোষণা

জাতির এই কলংক ঘুচবে কবে?

অনলাইন ডেস্ক | শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০ | পড়া হয়েছে 106 বার

জাতির এই কলংক ঘুচবে কবে?

ইতিহাস গড়া বাঙালি জাতির ইতিহাসে কিছু কলঙ্ক রচনাকারীর জন্ম এই দেশের মাটিতেই হয়েছিল, তারাও বাঙালি। জাতি তাদের পরিচয় কখনো বেঈমান, কখনো মিরজাফর, কখনো অকৃতজ্ঞ বলেই পরিচয় করায়। আজ ১৫ আগস্ট বাঙালির ইতিহাসে এমন এক কলঙ্কময় অধ্যায় রচনা করার দিন, যা বাঙালি জাতি চাইলেই ভুলতে পারবে না। পারবে না তা ইতিহাসের পাতা থেকে মুছে ফেলতে।
দীর্ঘ প্রায় পয়তাল্লিশ বছর আগে আজকের এই দিনে বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করেছিল এই দেশের কতিপয় উশৃংখল সেনা সদস্য। এতবড় এক জঘন্য হত্যাকান্ড ঘটানোর পরেও হত্যাকারীরা ছিল বহাল তবিয়তে। তাও আবার দাম্ভিকতার সাথে। দেশের ভিতরেই জাতির একটি অংশ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের অস্তিত্ব মুছে ফেলার যে পায়তারা করেছিল তাতে তারা সফল হতে পারেনি।

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে তার পিতা তথা জাতির পিতার হত্যাকারীদের বিচার কাজে কোনো প্রকার তরিঘরি করেননি। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার প্রয়াসে আইন তার নিজস্ব গতিতে যেনো চলতে পারে এবং বিচার বিভাগকে স্বাধীনতা দেবার জন্যই মুজিব হত্যার বিচারে হস্তক্ষেপ করেননি।

তবে অপরাধীদের বিচার এই দেশের মাটিতেই হয়েছে, শাস্তিও হয়েছে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী এই দেশের মাটিতেই। আমরা চাই পরবর্তী সকল খুন বা হত্যার বিচার যেনো নিভৃতে না কাঁদে। সকল অপরাধের সুষ্ঠু বিচারের মধ্য দিয়ে চাই আইনী শাসনের প্রতিষ্ঠা এবং সেটি যেনো হয় আজকের প্রতিজ্ঞা বর্তমান সরকারের।

অতীত ইতিহাস থেকে শিক্ষা নেয়ার আলোকে বলতে পারি আমাদের জাতির এই কলংক কখনো হয়তো ঘুচবে না। তবে এমন ঘৃণ্য ও ন্যাক্কার ঘটনা যেনো এই বাংলার মাটিতে যেনো আর না ঘটে।

পি. আর. প্ল্যাসিড
সম্পাদক
বিবেকবার্তা ডট নেট

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |