ঘোষণা

অলিম্পিক বাতিলে ১৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতির সম্মুখিন জাপান

বিবেকবার্তা ডেস্ক | শনিবার, ২৯ মে ২০২১ | পড়া হয়েছে 134 বার

অলিম্পিক বাতিলে ১৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতির সম্মুখিন জাপান

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ার কারনে দুমাসেরও কম সময় অর্থাৎ ২৩ জুলাইঅলিম্পিক গেমস শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা সম্ভব হচ্ছে না,যা জাপানের জন্য বড় দুম্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নমুরা রিসার্চ ইন্সটিটিউটের এই সংবাদ জাপান টাইমস গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছে। গবেষণা সংস্থাটি সতর্ক করেছে যে অলিম্পিক গেমসের কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবারও বেড়ে গেলে এর থেকে অর্থনীতিতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আরও অনেক বেশি হতে পারে। এনআরআই-এর নির্বাহী অর্থনীতিবিদ টাকাহিদে কিউচি বলেন, ‘অলিম্পিক বাতিল হলেও তাতে দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণার চেয়ে অর্থনৈতিক ক্ষতি কম হবে।এনআরআই-এর হিসাব অনুযায়ী, দর্শকবিহীন অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হলে এক দশমিক ৬৬ ট্রিলিয়ন ইয়েন আয় হবে। আর স্থানীয় দর্শকদের এ আয়োজনে অংশ নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হলে এর সঙ্গে আরও ১৪৬ দশমিক আট বিলিয়ন ইয়েন যোগ হতে পারে।
করোনা মহামারির কারনে এবারের অলিম্পিক গেমস না হবার আশঙ্কায় রয়েছে জাপান।
জাপানের বেশির ভাগ অঞ্চলে করোনা বেড়ে যাওয়ায় সেসব অঞ্চলে জরুরী অবস্হা জারি করা হয়েছে।দেশটির টিকাদান কর্মসূচী বেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। তবে তা এখনও উন্নত বিশ্বের দেশগুলো, যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে।
ব্যাঙ্ক অব জাপানের নীতিমালা সংক্রান্ত বোর্ডের সাবেক সদস্য কিউচি বলেন, ‘বিভিন্ন পূর্বাভাষ বলছে অলিম্পিকের আয়োজন করা আর না করার ব্যাপারটি। আর আয়োজন করলেও সেখানে দর্শক থাকবে কি থাকবে না, তা সংক্রমণের ঝুঁকির ভিত্তিতেই নির্ধারণ করা উচিৎ। অর্থনৈতিক ক্ষতির হিসাবের ভিত্তিতে নয়।’

২০২১ সালের প্রথম তিন মাসে জাপানের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পাঁচ দশমিক এক শতাংশ কমে গেছে। আর বিশেষজ্ঞদের মতে, এপ্রিল থেকে জুন মাসে তা আরও সংকুচিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

গত সপ্তাহে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট জন কোটস বলেন, টোকিওতে জরুরি অবস্থা বজায় থাকলেও ২৩ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট পর্যন্ত অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হবে।

সৌজন্য-দি ডেইলি স্টার
সম্পাদনা- রীতা আক্তার

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ২:১৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৯ মে ২০২১

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত