ঘোষণা

লবণ সহিষ্ণু নতুন জাতের ধান উদ্ভাবন করেছেন জাপানি বিজ্ঞানীরা

ওমর শাহ | সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 73 বার

লবণ সহিষ্ণু নতুন জাতের ধান উদ্ভাবন করেছেন জাপানি বিজ্ঞানীরা

প্রাকৃতিক দুর্যোগ খরা ও লবণাক্ততার কারণে উদ্বেগে থাকা কৃষকদের সুখবর জানিয়েছে জাপানি বিজ্ঞানীরা।

তাদের উদ্ভাবিত নতুন একটি জাতের লবণ সহিষ্ণু ধান বাংলাদেশ ও ভিয়েতনামের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রবণ অঞ্চলের কৃষকরা উপকৃত হবে বলে দাবি করেছে বিজ্ঞানীরা।

প্রায় ৫ বছর গবেষণা করে ইন্দোনেশিয়ার এক প্রকার ধানে এই জিনের সন্ধান পেয়েছেন জাপানির বিজ্ঞানীরা।

জিনগত উন্নতির পথ খুঁজে বের করে এই ধানটি তৈরি করেছে জাপানের জাতীয় কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠান এনএআরও।

এনএআরও’র বিজ্ঞানীদের দাবি, ধানের এমন এক জিন খুঁজে পেয়েছেন যা মূল বৃদ্ধির ‘অ্যাঙ্গেল’নির্ধারণে ভূমিকা রাখে।

বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের এই দিনগুলোতে এই ধান আবিষ্কার আরও নতুন জাতের সন্ধান দেবে বলে আশা বিজ্ঞানীদের।

২০৫০ সাল নাগাদ জাপানের উপকূলীয় এলাকাসহ পৃথিবীর কয়েকটি দেশের অর্ধেকের বেশি আবাদি জমি লবণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

বাংলাদেশ ও ভিয়েতনাম ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে এখনই ধানের উৎপাদন অনেকাংশে কমে গেছে।

লবণাক্ত জমিতে এর ফলন কয়েক গুণ বাড়বে। অন্য জমিতেও সাধারণ ধানের মতো ফলন দেবে।

উপকূলীয় এলাকার খরা ও উচ্চ মাত্রায় লবণাক্তযুক্ত মাটি ধানের চারাকে পানিতে বেড়ে উঠতে দেয় না।

তবে জাপানি বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত নতুন জাতের ধান লবণাক্তযুক্ত মাটিতেও ফলন দেয়।

এই ধান লবণাক্ত পানিতে ১৫ শতাংশ বেশি ফলন দেবে বলে দাবি করেন গবেষকরা।

তথ্যসূত্র: জাপান টুডে

সম্পাদনা : পি আর প্ল্যাসিড

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ২:২২ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত