ঘোষণা

আগস্টের পর প্রথমবার টোকিওতে করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা ৩০০ ছাড়াল

অনলাইন ডেস্ক | বুধবার, ১১ নভেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 25 বার

আগস্টের পর প্রথমবার টোকিওতে করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা ৩০০ ছাড়াল

জাপানের রাজধানী টোকিওতে আগস্টের পর করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা তিন শতাধিক এর ঘরের কোটা অতিক্রম করল।চলতি বছরের ২০ আগস্ট এর পর এটি সর্বোচ্চ সংখ্যা। বুধবার এ সংখ্যাটি ছিল ৩১৭।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায় তাপমাত্রা শীতল হওয়ায় এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। কেননা মানুষজন যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করে ঘরের বাহিরে দীর্ঘ সময় ব্যয় করছে যা করোনা পজিটিভ এর সংখ্যা বাড়িয়ে দিচ্ছে।

নভেম্বরের শুরু থেকেই জাপানের রাজধানীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা অনুপাতে বাড়ছে। প্রতিদিনের হিসেবে এর আগে গত সাতদিন প্রায় দুই শতাধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে যা আগস্টে আক্রান্ত সমান বলে জানান স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

রাজধানীতে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইউসুহিদ সুগা ১১ নভেম্বর মাস্ক পরে অফিস করেছেন। করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ করতে সবাইকে সচেতন হতেও তিনি আহ্বান জানান।

এই পর্যন্ত টোকিওতে সর্ব মোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৩৭৭ জন যা দেশটির  ৪৭টি প্রশাসনিক অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত অঞ্চল।

এরপরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত প্রশাসনিক অঞ্চল। বুধবার নতুন করে একদিনে সর্বোচ্চ ২৫৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে যা মহামারি শুরু হওয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বলে জানিয়েছেন গভর্নর হিরো ফুমি ইয়োশিমুরা।

এছাড়াও জাপানের গ্রামাঞ্চলেও করোনয় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হঠাৎ করে বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জাপানের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানিয়েছে ।

জাপানের জনপ্রিয় পর্যটন এলাকা হোক্কাইডোতেও করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা বাড়ছে। গত সাতদিন ধরে একশোর উপরে করোনা রোগী পাওয়া যাচ্ছে। গত মঙ্গলবার প্রায় নতুন করে ২০০ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

জাপানের বিশ্লেষকরা বলছেন দেশটির সরকার নাগরিকদের ওপর জীবনযাপন সহজ করায় এই করোনা আক্রান্ত সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই অতিসত্বর সবাইকে আবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছে জাপানের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ।

তথ্যসূত্র: কায়দো নিউজ

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:৫২ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১১ নভেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত