ঘোষণা

বোধের বিদ্রূপ

রাজীব কুমার দাস | শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 93 বার

বোধের বিদ্রূপ

যাদের খুশি, সুখী রাখতে নিজের প্রাণময় সুখ মাড়িয়ে, তাড়িয়ে আমি-তুমি-সে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত শুধুই অর্থ, বিত্তের, প্রাচুর্য চিন্তাতে বিভোর থেকেছি। সবারই জীবনের হতচ্ছাড়া সময়ে তাদের হতে একে একে উত্তর আসতে পারে, ‌‘এটা, ওটা, সেটা করা তোমার দায়িত্বের মধ্যে পড়ে, তাই করেছো।’

‘তুমি এমন কি করেছো? কৈ তেমন কিছু তো মনে পড়ছে না।’

‘এ পৃথিবীর মনে হয়, তুমিই একমাত্র চরম স্বার্থপর মানুষরূপী ইবলিশ’

‘তোমার কারণেই কারো কাছে মুখ দেখাতে পারি না।’

চলৎশক্তি হারানোর পরেই জমবে আসল উরঙ্গম ফোঁস ফোঁসানি। মনের জ্বালা আগ্নেয়গিরি। নাটকের নাম দিতে পারে, ‘আশার বাতিগুলো নিবুনিবু জ্বলছে।’

অর্থ বিত্তের মোহে আপনজনের একান্ত ভাবনা, ‘তাড়াতাড়ি মরে না কেনো।’ মৃত্যুভয় তাড়না-ভাবনা সব সময়! জীবনের হিসেব নিকেশ আপনজন কেউ বুঝুক না জানুক, আমি, তুমি, সে জানি। কী পুঁজিপাটা নিয়ে পরম দয়ালের কাছে যাবো? হে দয়াল! মৃত্যুর গর্বিত পবিত্র সৌন্দর্য আমি-তুমি-সে পাবো না?

লেখক: প্রাবন্ধিক ও কবি, পুলিশ পরিদর্শক, বাংলাদেশ পুলিশ।

Facebook Comments

বাংলাদেশ সময়: ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০

জাপানের প্রথম অনলাইন বাংলা পত্রিকা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত